The DU Speech https://www.duspeech.com/2022/12/dubai-to-itali.html

দুবাই থেকে ইতালি যাওয়ার উপায় | দুবাই থেকে ইতালির দূরত্ব কত কিলোমিটার?

দুবাই থেকে ইতালি যাওয়ার উপায় ও দুবাই থেকে ইতালির দূরত্ব কত কিলোমিটার? এই সম্পর্কে আপনারা অনেকেই জানতে চান। সেজন্য আজকে আমরা আপনাদের সাথে আলোচনা করবো দুবাই থেকে ইতালি যাওয়ার উপায় এবং দুবাই থেকে ইতালির দূরত্ব কত কিলোমিটার? তা নিয়ে। দুবাই থেকে ইতালি যাওয়ার উপায় এবং দুবাই থেকে ইতালির দূরত্ব কত কিলোমিটার? এই সম্পর্কে সকল তথ্য জানতে আর্টিকেলটি সম্পূর্ণ পড়ুন। আশা করছি এই সম্পর্কে আপনারা ভালো একটি ধারণা লাভ করবেন।

আর্টিকেল সূচিপত্র (যে অংশ পড়তে চান তার ওপর ক্লিক করুন)

  1. দুবাই থেকে ইতালি ভিসা
  2. দুবাই থেকে ইতালি যাওয়ার পদ্ধতি
  3. দুবাই থেকে ইতালি ওয়ার্ক পারমিট ভিসা
  4. দুবাই থেকে ইতালি ভিসা আবেদন
  5. প্রয়োজনীয় কাগজপত্র
  6. দুবাই থেকে ইতালির দূরত্ব
  7. আর্টিকেল সম্পর্কিত প্রশ্ন-উত্তর
  8. লেখকের মন্তব্য

১.দুবাই থেকে ইতালি ভিসা | দুবাই থেকে ইতালি যাওয়ার উপায় | দুবাই থেকে ইতালির দূরত্ব কত কিলোমিটার? 

বর্তমানে দুবাইয়ে প্রচুর শ্রমিক রয়েছে। তাই দিন দিন কাজের চাহিদা অনেকটাই কমে আসছে। দুবাইয়ে বর্তমানে নতুন কাজের অনেকটাই অভাব এবং এখানে বেশি কাজ করার পরেও ভালো পরিমাণ বেতন পাওয়া সম্ভব হয় না। তাই অনেকেই চিন্তা-ভাবনা করে থাকে যে দুবাই থাকা অবস্থায় ইউরোপের দেশে অথবা ইতালিসহ অন্য রাষ্ট্রে কিভাবে যাওয়া যায়।

বর্তমানে দুবাই থেকে বিভিন্ন রাষ্ট্রের যাওয়ার সুযোগ রয়েছে। তবে তাদের রিকোয়ারমেন্ট অনুযায়ী এবং আপনার অবস্থা অনুযায়ী আপনিও চাইলে যেতে পারবেন দুবাই থেকে বিভিন্ন জায়গায়। তবে এক্ষেত্রে অবশ্যই আপনাদেরকে সঠিক পদ্ধতি অবলম্বন করে তারপরেই যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিতে হবে। এটা সম্পূর্ণ বৈধভাবে যাওয়ার একটি প্রক্রিয়া। কখনোই অবৈধপথে ইতালি পাড়ি দেবেন না। এক্ষেত্রে আপনার বড় ধরনের সমস্যা হতে পারে।

২.দুবাই থেকে ইতালি যাওয়ার পদ্ধতি |  দুবাই থেকে ইতালি যাওয়ার উপায় | দুবাই থেকে ইতালির দূরত্ব কত কিলোমিটার?  

দুবাই থেকে ইতালি যাওয়ার জন্য অবশ্যই আপনাকে দুবাইয়ে এক বছর অবস্থান করা লাগবে। তারপরেই আপনি ইতালি যাওয়ার জন্য আবেদন করতে পারবেন। কারণ দুবাই থেকে যদি কেউ অন্য কোন দেশে যেতে চায় তাহলে দুবাইতে তাদেরকে দুই বছরের মধ্যে এক বছর অবশ্যই অবস্থান করা লাগবে। তারপরেই আপনি অন্যান্য দেশে ভিসা অথবা টুরিস্ট ভিসা সহ অন্যান্য ভিসা নিয়ে যেতে পারবেন ।তার আগে কখনোই যাওয়া সম্ভব নয়।

এ ক্ষেত্রে কয়েকটি প্রসেস আপনাকে অবলম্বন করতে হবে। তা হল প্রথমে আপনাকে দুবাই টুরিস্ট ভিসা অথবা অন্য কোনো কাজের ভিসা নিয়ে সেখানে পাড়ি জমাতে হবে। আপনি যদি টুরিস্ট ভিসা নিয়ে সেখানে পাড়ি জমান তাহলে সেটি কনভার্ট করে নিতে হবে কাজের ভিসায়। তারপরেই আপনাকে এক বছর সেখানে অবস্থান করার পরেই আপনি ইতালির ভিসার জন্য আবেদন করতে পারবেন। সেই ক্ষেত্রে ইতালি কয়েকটি ভিসা ক্যাটাগরি রয়েছে সেই ক্যাটাগরি অনুযায়ী আপনাকে আবেদন করতে হবে। যেমন ইটালিতে কয়েকটি ক্যাটাগরিতে ভিসা আছে বিজনেস ভিসা আর অন্যটি হচ্ছে নরমাল জব আরেকটা এডুকেশনাল পারসন দের জন্য।

এই ক্ষেত্রে আপনি নর্মাল ভিসা বা কাজের ভিসা নিয়ে সেখানে পাড়ি দিতে পারেন। এ ক্ষেত্রে তেমন কোনো রিকোয়ারমেন্ট লাগেনা ।এই ক্ষেত্রে শুধুমাত্র কয়েকটি বিষয়ের প্রতি গুরুত্ব দিয়ে থাকে।যদি কাজের ভিসা নিয়ে যেতে পারেন তাহলে আপনাকে নর্মাল কোন কাজ নিয়ে সেখানে যেতে হবে। আপনি যদি হাই ক্যাটাগরির কাজ নিয়ে সেখানে যেতে চান তাহলে আপনার ভিসা অ্যাপ্রুভাল পাবেন না।

৩. দুবাই থেকে ইতালি ওয়ার্ক পারমিট ভিসা | দুবাই থেকে ইতালি যাওয়ার উপায় | দুবাই থেকে ইতালির দূরত্ব কত কিলোমিটার? 

আপনি যদি দুবাই থেকে ইতালির ওয়ার্ক পারমিট ভিসা নিতে চান
তাহলে আপনাকে ইতালির যে সমস্ত জব ওয়েবসাইটগুলো আছে সেই‌ সমস্ত সাইটগুলোতে আপনার একটি সিভি তৈরি করে সেখানে আবেদন করতে হবে। অবশ্যই তাদের রিকোয়ারমেন্ট অনুযায়ী আবেদন করবেন। আবেদন করার পরে আপনার ফোন নাম্বারে অথবা ই-মেইল এর মাধ্যমে‌ আপনার সঙ্গে যোগাযোগ করবে ।যোগাযোগ করে আপনি যদি আপনার রিকোয়ারমেন্ট ঠিকঠাক থাকে তাহলে আপনার ভিসা তৈরি প্রসেস তারাই করে দিবে এবং এই ইনভাইটেশন লেটার নিয়ে আপনারা দুবাইয়ের ইতালি দূতাবাস হতে ওয়ার্ক পারমিট ভিসার জন্য আবেদন করতে পারবেন।

৪.দুবাই থেকে ইতালি ভিসা আবেদন | দুবাই থেকে ইতালি যাওয়ার উপায় | দুবাই থেকে ইতালির দূরত্ব কত কিলোমিটার? 

এক্ষেত্রে আপনি বাংলাদেশের বিভিন্ন কোম্পানি অথবা ইন্ডিয়ান‌ বিভিন্ন কোম্পানি রয়েছে যারা ইতালিতে কাজের ভিসা দিয়ে ইতালিতে পাঠাচ্ছে ।এক্ষেত্রে আপনারা তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারেন। অথবা চাইলে আপনি সরাসরি ইতালি দূতাবাস হতে আপনি যোগাযোগ করে ভিসার জন্য আবেদন করতে পারবেন। এবং তাদের কাছে গেলেই ইতালিতে বর্তমানে কোন ভিসায় লোক নিয়োগ দিচ্ছে সে বিষয়েও আপনারা অবগত হতে পারবেন এবং সেই অনুযায়ী আপনারা ভিসার জন্য আবেদন করতে পারবেন।

৫.প্রয়োজনীয় কাগজপত্র | দুবাই থেকে ইতালি যাওয়ার উপায় | দুবাই থেকে ইতালির দূরত্ব কত কিলোমিটার? 

দুবাই থেকে ইতালি যাওয়ার প্রয়োজনীয় কাগজপত্র গুলো হল:
  1. 6 মাস মেয়াদী এক্টিভেট পাসপোর্ট
  2. এনআইডি কার্ডের ফটোকপি
  3. দুই কপি পাসপোর্ট সাইজের ছবি
  4. ছয় মাসের ব্যাংক স্টেটমেন্ট এর ফটোকপি
  5. এর আগে কোথায় ট্র্যাভেল করেছেন তার প্রমাণ
  6. বর্তমানে কোন কাজের নিয়োজিত আছেন তার প্রমান
  7. দুবাইতে কতদিন অবস্থান করছেন,পাসপোর্টের একটি কপি
  8. কোন কাজের প্রতি দক্ষতা আছে তার একটি বেতন রশিদ
এই সমস্ত কাগজপত্র নিয়ে আপনাকে দুবাইয়ের যে কোন এজেন্সির‌ মাধ্যমে গেলেই আপনি ভিসার জন্য আবেদন করতে পারবেন। অথবা ইতালি দূতাবাস হতে ভিসার জন্য আবেদন করতে পারবেন। তবে অবশ্যই এ সমস্ত প্রয়োজনীয় কাগজপত্র নিতে হবে এবং সেইসাথে অবশ্যই এক বছর আপনাকে দুবাইয়ে অবস্থান করার পরেই আবেদন করতে পারবেন।

৬.দুবাই থেকে ইতালির দূরত্ব | দুবাই থেকে ইতালি যাওয়ার উপায় | দুবাই থেকে ইতালির দূরত্ব কত কিলোমিটার? 

দুবাই থেকে ইতালির দূরত্ব ৬২৬৭ কিলোমিটার।দুবাই থেকে ইতালির বিমান পথের দূরত্ব ৪৩২১ কিলোমিটার।

৭. আর্টিকেল সম্পর্কিত প্রশ্ন-উত্তর | দুবাই থেকে ইতালি যাওয়ার উপায় | দুবাই থেকে ইতালির দূরত্ব কত কিলোমিটার? 

প্রশ্ন ১: দুবাই থেকে কি ইতালি যাওয়া যায়?

উত্তর: দুবাই থেকে ইতালি যাওয়া যায়।

প্রশ্ন ২:দুবাই থেকে ইতালি যাওয়ার খরচ কত?

উত্তর:৬-৭ লক্ষ টাকা।

প্রশ্ন ৩: দুবাই থেকে ইতালি যাওয়ার জন্য দুবাইতে কতদিন থাকতে হবে?

উত্তর:দুবাই থেকে ইতালি যাওয়ার জন্য অবশ্যই আপনাকে দুবাইয়ে এক বছর অবস্থান করা লাগবে।

আরও পড়ুনঃ জেনে নিন অনিয়মিত মাসিক হওয়ার কারণ

৮. লেখকের মন্তব্য | দুবাই থেকে ইতালি যাওয়ার উপায় | দুবাই থেকে ইতালির দূরত্ব কত কিলোমিটার? 

আজকে আমরা আপনাদের সাথে আলোচনা করলাম দুবাই থেকে ইতালি যাওয়ার উপায় | দুবাই থেকে ইতালির দূরত্ব কত কিলোমিটার?  নিয়ে। আশা করছি দুবাই থেকে ইতালি যাওয়ার উপায় | দুবাই থেকে ইতালির দূরত্ব কত কিলোমিটার?  সম্পর্কে আপনারা সকল কিছু বুঝতে পেরেছেন। দুবাই থেকে ইতালি যাওয়ার উপায় | দুবাই থেকে ইতালির দূরত্ব কত কিলোমিটার? সম্পর্কে আপনার যদি কোন প্রশ্ন থাকে সেটি আমাদের অবশ্যই জানাবেন এবং এই সম্পর্কে আপনার মতামত কমেন্টের মাধ্যমে আমাদেরকে জানাতে পারেন।
আর্টিকেলটি লিখেছেন: নুসরাত জাহান হিভা 
পড়াশোনা করছেন: রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় 
লেখকের জেলার নাম: কুমিল্লা



ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় আর্টিকেল রাইটিং সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা
মো. আব্দুল্লাহ আল মামুন
পড়াশোনা করছেন:  ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়। 
জেলা: নাটোর

পরিচিতদেরকে জানাতে শেয়ার করুন

0 Comments

দয়া করে নীতিমালা মেনে মন্তব্য করুন ??

অর্ডিনারি আইটি কী?