The DU Speech https://www.duspeech.com/2021/12/akkeldat-batha-komanorupai.html

আক্কেল দাঁত ব্যথা কমানোর উপায়, ঔষধ | আক্কেল দাঁত ব্যথার ঔষধ

  প্রতিটি মানুষেরই জীবনের এক পর্যায়ে আক্কেল দাঁত উঠে এবং আক্কেল দাঁতের সাথে আগমন ঘটে অসহ্য ব্যথার। আক্কেল দাঁত এর ব্যথ্যা কমানোর উপায়  অনুসন্ধান করে থাকেন। ঠিক সে সময়ই মানুষের বেআক্কেলি মনের মনে হয় এই আক্কেল দাঁত সম্পর্কে আসলে জানা উচিত যে মানুষের আক্কেল দাঁতের ব্যথা কমানোর উপায় বা ঔষধ, দাঁতের ব্যথায় হোমিও ঔষধ  , পোকা দাঁতের ব্যথা কমানোর উপায়,  আক্কেল দাঁত ওঠার লক্ষণ, আক্কেল দাঁত উঠতে কত সময় লাগে? অসচেতনার কারণে যখন সমস্যা আরো গুরুতর হয় তখন আরও জানতে ইচ্ছে করে যে আক্কেল দাঁতের ব্যথা কতদিন থাকে, আক্কেল দাঁত কেন উঠে, আক্কেল দাঁতের অপারেশন খরচ কত, আক্কেল দাঁত তুললে কি সমস্যা হয় ইত্যাদি।  উপরের বিষয়গুলো  বিশেষ করে আক্কেল দাঁত ব্যথা কমানোর উপায় নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করা হবে এই আর্টিকেলে। 


এই আর্টিকেলে আক্কেল দাঁতের প্রতিটি অবস্থা  এবং ব্যথা কমানোর উপায় ধারাবাহিকভাবে বর্ণনা করা হবে যা আপনার জানা উচিত। 

আর্টিকেল সূচিপত্র   (যে অংশ পড়তে চান তার ওপরে ক্লিক করুন)

  1. আক্কেল দাঁত কী?  আক্কেল দাঁত কতটি? 
  2. আক্কেল দাঁত কেন উঠে? 
  3. আক্কেল দাঁত ওঠার লক্ষণ
  4. আক্কেল দাঁত উঠতে কত সময় লাগে?
  5. ব্যথা কতদিন থাকে? দাঁতের মাড়িতে ইনফেকশন
  6. কোন ভিটামিনের অভাবে দাঁতের মাড়ি ফুলে?
  7. আক্কেল দাঁতের ব্যথা কমানোর প্রাকৃতিক উপায় 
  8. এলোপ্যাথি ঔষধ 
  9. হোমিও ঔষধ 
  10. আক্কেল দাঁত তুললে কী সমস্যা হয়?
  11. আক্কেল দাঁতের অপারেশন খরচ কত?

১.আক্কেল দাঁত কী? আক্কেল দাঁত কতটি?আক্কেল দাঁত ব্যথ্যা কমানোর উপায়

আমাদের দাঁতের মাড়ির একদম শেষ প্রান্তে উপরে, নিচে ও দুইপাশে একটি একটি করে মোট চারটি দাঁতকে আক্কেল দাঁত বলা হয়।  আক্কেল দাঁতের ইংরেজি প্রতিশব্দ হলো 'উইজডম টিথ'। আক্কেল দাঁত ওঠার আগে মানব মুখে ২৮ টি দাঁত অবস্থান করে। এই আক্কেল দাঁত সাধারণ  ১৮-২৫ বছরের মধ্যে দাঁতের শেষ প্রান্তে উঠে থাকে। 

২. আক্কেল দাঁত কেন উঠে? আক্কেল দাঁত ব্যথ্যা কমানোর উপায়

 আসলে আক্কেল দাঁতের কোনো প্রয়োজনীয়তা নেই। এটা আমার কথা নয় পশ্চিমা দেশগুলোতে অধিকাংশ মানুষই আক্কেল মাড়ির দাঁত তুলে ফেলেন অপারেশনের মাধ্যমে। আমাদের অধিকাংশ মানুষেরই দাঁতের মাড়িতে অতিরিক্ত বা আক্কেল দাঁতের জন্য পর্যাপ্ত স্থান নেই। যখন আক্কেল দাঁত উঠে তখন তার জন্য পর্যাপ্ত জায়গা পায়না ফলে দাঁতের আশেপাশে ফুলে ওঠে এবং সেখানে খাদ্যকণা জমে ব্যাকটেরিয়ার সংক্রমণের কারণে ব্যথার সৃষ্টি হয়। আমাদের দাঁতের পাটির মধ্যে সুপ্ত অবস্থায় থাকে পরবর্তীতে ১৮-২৫ বছরের মধ্যে এই দাঁত ওঠতে শুরু করে।

৩. আক্কেল দাঁত ওঠার লক্ষণ |আক্কেল দাঁত ব্যথ্যা কমানোর উপায়

দাঁতের পাটি বা মাড়িতে ব্যথা বা ফুলে উঠলে অনেকেই অতঙ্কিত হয়ে পড়েন। মাঝে মাঝে গলার দিকেও ফুলে ওঠে এতে অনেকেই মনে করেন যে টনসিল হয়েছে এগুলো মূলত আক্কেল দাঁত ওঠার লক্ষণ। আক্কেল দাঁত ওঠার লক্ষণ সমূহ -

  • আক্কেল দাঁত ওঠার মাড়িটা ফুলে যায়
  • উক্ত মাড়িতে প্রচন্ড ব্যথার সৃষ্টি হয়
  • গলা ও মুখ ফুলে উঠে (অনেকেই ভাবেন যে এটা টনসিলের ব্যথা তা সঠিক নয়)
  • দাঁতের প্রদাহের ফলে মাঝে মাঝে হা করতে কষ্ট হয়।
  • খাবার চিবুতে বেশ সমস্যার সম্মুখীন হতে হয়।
  • যাদের মাড়িতে আক্কেল দাঁতের জন্য পর্যাপ্ত স্থান নেই তাদের মাড়িটা ফুলে ওঠে এবং দাঁতের আশে পাশে অতিরিক্ত মাংস বা টিস্যু বেরিয়ে আসে।  মাঝে মাঝে এই অতিরিক্ত টিস্যু বা মাংসের সাথে দাঁতের চাপ লেগে প্রদাহের সৃষ্টি হয়। সামান্য একটি অপারেশনে এই অতিরিক্ত টিস্যুকে কেটে ফেলা হয়।
  • সমস্যা গুরুতর অবস্থায় পৌঁছালে শ্বাসকষ্ট হতে পারে।
  • ফুলে ওঠা দাঁতের পাশ থেকে একধরনের সামান্য তরল  নির্গত হয়। যা দুর্গন্ধের সৃষ্টি করে।
আক্কেল মাড়ির দাঁত ওঠার সময় এসকল লক্ষণ সাধারণত দেখা যায়। এসময় প্রয়োজন বাড়তি যত্ন ও সচেতনতা। সমস্যা দীর্ঘদিনের হলে যোগাযোগ করুন রেজিস্টারেড চিকিৎসকের সাথে।

৪. আক্কেল দাঁত উঠতে কত সময় লাগে? মানুষের আক্কেল দাঁত কতটি?

এর আগেই পড়েছেন যে সাধারণত আক্কেল দাঁত একটি নির্দিষ্ট বয়সের মধ্যে উঠে থাকে যার বয়সসীমা হলো ১৮-২৫।  এবং মানুষের আক্কেল দাঁত কতটি? এটার উত্তরও জানেন। মানুষের এই ৪ টি আক্কেল দাঁত একই সঙ্গে গজায় না।  কারও কারও আবার একই সঙ্গে একাধিক দাঁত ওঠে বা গজায়। 

অধিকাংশের এই চারটি দাঁত ৪ বারে উঠে থাকে। এবং প্রতিবার এই দাঁত ওঠার সময় আক্কেল দাঁত ওঠার লক্ষণ গুলো দেখা যায়।সাধারণ এই আক্কেল দাঁত ওঠার সময় প্রতিবার ৫-১০ দিন সময় প্রয়োজন হয়। কারও কারও ক্ষেত্রে আবার একটু বেশি বা কম সময় লাগে। 

৫. ব্যথা কতদিন থাকে? দাঁতের মাড়িতে ইনফেকশন |  আক্কেল দাঁত ব্যথ্যা কমানোর উপায়

নতুন আক্কেল মাড়ির দাঁত ওঠার কারণে বেশ ঝামেলায় পড়েন অধিকাংশ মানুষই। দাঁত সঠিকভাবে ওঠার জন্য মাড়ি নরম হয় এবং কিছুটা ফুলেও ওঠে এ সম্পর্কে উপরেও লেখা হয়েছে। প্রতিটি বিষয়ই আসলে একে অপরের সাথে জড়িত। মাড়ি নরম হয়ে ওঠে এতে খাবারের সময় দাঁতের গোড়ায় খাদ্যকণা জমে ব্যাকটেরিয়ার সংক্রমণে ইনফেকশন হয়।

 তখন এক প্রকার তরল পদার্থ নির্গত হয়।  এই তরলের কারণে সাদা আস্তরণ পড়ে দাঁতে এবং দুর্গন্ধ এর সৃষ্টি হয়। এমতাবস্থায় নিয়মিত  দাঁত ব্রাশ করতে হবে।   এই সমস্যার কারণে ব্যথার সৃষ্টি হয় যা বেশ কিছুদিন স্থায়ী হয়। সাধারণত ৫-১০ দিনের মধ্যে স্বাভাবিকভাবে ব্যথা কমে যায়। আর ইনফেকশন গুরুতর হলে তা স্থায়ী হয়।  কিছুদিন পর পর ব্যথার সৃষ্টি হয়। এমতাবস্থায় ভালো চিকিৎসকের সাথে যোগাযোগ করবেন।

৬. কোন ভিটামিনের অভাবে দাঁতের মাড়ি ফুলে? আক্কেল দাঁত ব্যথ্যা কমানোর উপায়

সুন্দর ও স্বাস্থ্যকর দাঁত ও মাড়ি শুধু হাসিকেই ঝলমলে ও সুন্দর করে না পাশাপাশি স্বাস্থ্যের উপরও বড় প্রভাবক হিসেবে কাজ করে। ভিটামিন বিভিন্ন রোগের সাথে লড়াই করে রোগ প্রতিরোধ করতে সাহায্য করে। ভিটামিনের অভাবে দাঁত ও মাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়। 

দাঁতের টিস্যুগুলো দাঁত থেকে হালকা সরে যায়। এতে দাঁতগুলো দূর্বল হয়ে পড়ে। মাড়ি ফুলে লালচে আকার ধারণ করে।  দাঁত মূলত ক্ষতিগ্রস্ত হয় 'ভিটামিন সি' এর অভাবে।  ভিটামিন সি এর অভাবে মাড়ি ফুলে । এছাড়াও কিছু ভিটামিন এর অভাবেও দাঁত ও মাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয় যথা - ভিটামিন এ, ভিটামিন বি,  ভিটামিন সি, ভিটামিন ডি, ভিটামিন কে।

  • ভিটামিন-এ  লালার প্রবাহকে ভালো রাখে।  তাই সুস্থ থাকতে ভিটামিন এ সমৃদ্ধ খাবারের তালিকা আপনার দৈনন্দিন খাদ্য তালিকায় রাখুন। শাকসবজি,  গাজর, মিষ্টি আলু, সমুদ্রের মলা ও ঢেলা মাছ,  ছোটমাছ ও মাছের তেলে ভিটামিন এ  পাবেন।
  • ভিটামিন-বি মুখের ঘা ও জিহ্বার ঘা প্রতিরোধে সাহায্য করে। এমনকি আমরা মুখের বা জিহ্বার ঘায়ের জন্য এই ভিটামিন-বি সমৃদ্ধ ট্যাবলেট সেবন করে থাকি। লাল চাল, মটরশুঁটি,  সবুজ শাকসবজি, মাংস ও শিমে  ভিটামিন বি পাবেন।
  • ভিটামিন-সি মাড়িকে শক্তিশালী করে ব্যাকটেরিয়া সংক্রামক থেকে দাঁত ও মাড়িকে রক্ষা করে। ভিটামিন সি এর অভাবে জিহ্ববা ও মুখের অন্তরভাগে ঘা হয়,  প্রদাহের সৃষ্টি হয় ও রক্তপাত হয় ।  পেয়ারা,  লেবু,  কমলা,  আমলকী, কাঁচামরিচ,  কামরাঙ্গা ও আমড়াতে ভিটামিন সি পাওয়া যায়।
  •  ভিটামিন-ডি হাড় ও দাঁতকে শক্তিশালী ও মজবুত করে। ভিটামিন ডি মাড়ি ও দাঁতের রোগ প্রতিরোধ করে আপনার দাঁতকে সুস্থ রাখে। ভিটামিন ডি এর সবচেয়ে কার্যকরী উৎস হল সূর্যালোক। এছাড়াও ডিম মাছ মাংস ও সামুদ্রিক মাছে ভিটামিন ডি পাওয়া যায়। হাড় দাঁত ও মাড়িকে সুস্থ রাখতে নিয়মিত ভিটামিন ডি সমৃদ্ধ খাবার আপনার খাদ্য তালিকায় রাখুন। 
  • ভিটামিন-কে এর অভাবে আপনার মারি বা দাঁতের রক্তক্ষরণ থামবে না। ভিটামিন-কে মূলত রক্তক্ষরণ কমাতে সাহায্য করে অর্থাৎ দ্রুত কাটা স্থানে রক্ত জমাট বাঁধে। সয়াবিন তেল ও সবুজ শাকসবজিতে ভিটামিন কে পাওয়া যায়। 

৭. আক্কেল দাঁতের ব্যথা কমানোর প্রাকৃতিক উপায়| আক্কেল দাঁত ব্যথ্যা কমানোর উপায়


আক্কেল  দাঁত উঠবে আর ব্যথা হবে না এমনটা কেউ ভাবতেই পারে না তবে দু-এক জনের ব্যথা নাও হতে পারে এটা ব্যতিক্রম।  তবে অধিকাংশই ভীষণ রকমের ব্যথার৷ সম্মুখীন হয়। এই ব্যথা কিছুদিন স্থায়ী হয় তাই সঠিক পরিচর্যা বা যত্ন না নিলে ভুগতে হয় দীর্ঘদিন।  তবে আধুনিক চিকিৎসার পাশাপাশি আপনি যদি ঘরোয়া কিছু চিকিৎসা নেন তাহলে খুব দ্রতই সুস্থ হয়ে উঠবেন। আক্কেল দাঁতের ব্যথা কমানোর কিছু ঘরোয়া টিপস দেওয়া হলো-

লবন -

 দাঁতের যে কোন সমস্যায় লবন অনেক উপকারি ও কার্যকরী একটি উপাদান। খুব সহজেই এই উপাদানটি হাতের কাছে পেয়ে যাবেন। অনেক টুথপেষ্ট এর বিজ্ঞাপনেও এটাকে প্রমোট করতে দেখবেন। বিশেষ করে দাঁতের মাড়ি ফোলা জনিত ব্যথাতে খুবই কার্যকরী।  লবন এবং হালকা কুসুম গরম পানির মিশ্রণ তৈরি করবেন।  এবং দিনে যদি ৩/৪ বার এটার অর্থাৎ হালকা গরম পানি ও লবনের কুলকুচি করেন তবে উপকার পাবেন। লবন পানির মিশ্রণ আপনার মুখের ইনফেকশন জনিত সমস্যার কার্যকরি সমাধান দিবে।

পেয়াজ-

 দাঁতের ব্যথায় খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি অনুসঙ্গ। দাঁতে পেয়াজের ব্যবহারে অনেকেই অবাক হতে পারেন।  তবে পেয়াজের গুনাগুণ জানলে আপনিও অবাক হবেন। পেয়াজে আপনি পাবেন 
আন্টিসেপটিক, আন্টিব্যাকটেরিয়াল ও আন্টিমাইক্রোবিয়াল উপাদান যা আপনার দাঁতের ব্যথা ও জীবানু মেরে ফেলে আপনার আক্কেল দাঁতের ব্যথ্যা দূর করবে। তাই আপনি পেয়াজের কোয়া কিছুক্ষণের জন্য কয়েকদিন উক্ত দাঁতের নিচে দিয়ে রাখুন। দিনে আপনাকে ২/৩ বার এই পদ্ধতিতে পেয়াজ ব্যবহার করতে হবে। কিছুদিনেই ইনশাআল্লাহ সুফল বুঝতে পারবেন।

লবঙ্গ

 দাঁতের ব্যথা উপশমে লবঙ্গের জুড়ি মেলা ভার। লবঙ্গের ব্যবহারে খুব দ্রুতই আপনার দাঁতের সস্থি মিলবে। স্বস্থি পেতে দাঁতের উপর লবঙ্গ রেখে দিন। তবে অনেকেই মনে করেন লবঙ্গ জিবিয়ে ফেলতে হবে।  তবে এই ধারণা একদমই সঠিক নয়। লবঙ্গ আপনাকে চিবুতে হবে না। দাঁতের উপর রেখে দিন। লবঙ্গের পাশাপাশি লবঙ্গের তেলও দাঁতের জন্য বেশ উপকারী।  লবঙ্গের তেল উক্ত দাঁতে মেসেজ করলে উপকার পাবেন। লবঙ্গের তেল পাওয়ার জন্য আপনাকে কসমেটিক অথবা মুদির দোকানে যেতে হবে।

রসুন-

  রসুনকে বলা হয় সর্বগুণে গুণান্বিত। সর্ব রোগের জন্য উপকারি এই মসলাটির ব্যথানাশক হিসেবে খ্যাতি বেশ প্রাচীনকাল থেকেই। ব্যথানাশক এই রসুন দাঁতের ব্যথাতেও খুবই কার্যকরী।  আক্কেল দাঁতের ব্যথায় আপনার আক্রান্ত দাঁতে চেপে ধরুন।  কিছুদিন এভাবে ব্যবহার করুন দ্রুত সুস্থ্য হয়ে উঠবেন।

হলুদ-

 প্রাচীনকাল থেকেই এই হলুদ ক্ষত সারাতে কার্যকরী উপাদান হিসেবে আয়ুর্বেদ চিকিৎসায় ব্যবহৃত হয়ে আসছে। হলুদের আছে ব্যথানাশক,  এন্টিবায়োটিক ও   এন্টিব্যাকটেরিয়াল হওয়াই আয়ুর্বেদ চিকিৎসায় এটা সর্বজনীন ভাবে ব্যবহৃত হয়ে আসছে যুগ যুগ ধরে। এক কাপ গরম পানি নিবেন সেখানে আধা চা চামচ হলুদের গুড়া নিবেন এর সাথে দিবেন ২ টা লবঙ্গ এবং ১ টি পেয়ারা পাতা।  এই মিশ্রণটি ভালোমতো প্রস্তুত করে প্রতিদিন ৩/৪ বার কুলকুচি করুন দ্রুত মাড়ির ক্ষত ও ব্যথা দূর হবে।  

পুদিনাপাতা-

 অনেক স্বাস্থ্যগুণ সমৃদ্ধ।  পুদিনাপাতার সঠিক ব্যবহারে আপনার দাঁত ও মাড়ির ব্যথা দূর হয়ে আপনি স্বস্থি পাবেন। পুদিনা পাতায় আছে এন্টিব্যাকয়েরিয়াল ও এন্টিইনফ্লেমেটরি যা ব্যথা কমাতে কার্যকরী ভূমিকা রাখে। একটুকরো তুলা নিন এবং উক্ত তুলা পুদিনা পাতার রসে ভিজিয়ে আক্রান্ত দাঁত ও মাড়িতে লাগিয়ে রাখুন। পুদিনাপাতার রস ও এর পাশাপাশি পুদিনাপাতার চা ও পান করতে পারেন। গরম পুদিনা পাতার চা আপনার ব্যথা সারিয়ে তুলতে সাহায্য করবে।

এলোভেরা-  প্রাচীনকাল থেকেই রুপচর্চায় এলোভেরা জেল ব্যবহৃত হয়ে আসছে। আয়ুর্বেদ চিকিৎসায় এলোভেরা গুরুত্বপূর্ণ একটি ভেজস।  দাঁতের ব্যথা দূর করে এবং এমন হাজারো গুণে সমৃদ্ধ এলোভেরা। মাড়ির ফোলাভাবও দূর করতে পারে এই এলোভেরা। এলোভেরা জেল ব্যবহারে দ্রুত আক্রান্ত স্থান ঠান্ডা হয়ে ব্যথা কমতে শুরু করবে।

ভিনেগার-

 ভিনেগার বিভিন্ন রোগের চিকিৎসায় সফলভাবে ব্যবহৃত হয়ে আসছে। আপনার ঘরে যদি ভিনেগার থাকে তাহলে ১ চা চামচ ভিনেগারের সাথে ১ চা চামচ পানি মিশিয়ে একটি মিশ্রণ তৈরি করুন। এক টুকরো তুলা নিন উক্ত তুলাতে মিশ্রণটি লাগিয়ে নিয়ে আপনার আক্রান্ত মাড়িতে ধরে রাখুন। এই প্রক্রিয়াটি কয়েকদিন অনুসরণ করলে খুব দ্রুতই আপনার দাঁতের ব্যথা এবং ফোলা ভাব কমে যাবে। 

পেয়ারাপাতা

পেয়ারা পাতা দাঁতের ব্যথা এবং ফোলা ভাব দূর করতে সাহায্য করে। পেয়ারা গাছ থেকে কচি পেয়ারা পাতা সংগ্রহ করুন। পেয়ারা পাতা হালকা লবণ মিশ্রিত পানিতে গরম করে নিন । এরপর উক্ত গরম পেয়ারা পাতা আক্রান্ত দাঁত বা মাড়িতে লাগান। এভাবে কয়েকদিন প্রক্রিয়াটি অনুসরণ করলে আপনার দাঁতের গোড়া ও মাড়ির ফোলা ভাব এবং ব্যথা খুব দ্রুতই শেষ হবে।

শসা-আলু-বাঁধাকপি-

 হাতের কাছেই ভেজস কোন উপাদান না পেলে শসা আলু ও বাঁধাকপি আপনার দাঁতের ফোলা ভাব ও ব্যথার জন্য ব্যবহার করতে পারবেন। দাঁতের গোড়া ব্যথা ও মাড়ির ফোলা ভাব ও ব্যথা দূর করতে শসা , আলু ও বাঁধাকপির ছোট ছোট টুকরো করুন এবং এই টুকরোগুলো আক্রান্ত দাঁতের গোড়া বা মাড়িতে রেখে দিন। এভাবে কয়েক দিন ব্যবহার করলে আপনার দাঁতের ব্যথা ও মাড়ির ফোলা ভাব দূর হবে।

তুলসীপাতা-

 তুলসী পাতা ভেজস গুণে গুণান্বিত তা সর্বজন স্বীকৃত। দাঁতের ব্যথা ও মাড়ির ফোলা ভাব দূর করতে তুলসী পাতার ব্যবহার অনেকটা পুদিনা পাতার ব্যবহার এর সাথে মিলে যায়। তুলসী পাতার রস করে নিন প্রথমে উক্ত রস পরিষ্কার করে এক টুকরো তুলোয় ভিজিয়ে আক্রান্ত দাঁতের গোড়া বা মাড়িতে লাগিয়ে রাখুন। পুদিনা পাতার মতো তুলসী পাতার গরম চা পান করলে উপকার পাবেন, এতে খুব দ্রুতই আপনার দাঁত ও মাড়ির ফোলা ভাব ও ব্যথা দূর হয়ে যাবে।

লেবু-

 দাঁতের ব্যথা ও ফোলা ভাব দূর করতে লেবু চমৎকার পারফরম্যান্স করে থাকে। লেবুতে থাকা ভিটামিন সি আপনার দাঁত কে মজবুত করবে পাশাপাশি ব্যথাও দূর করবে। এক গ্লাস পানিতে 3 চা চামচ লেবুর রস ভালোভাবে মিশিয়ে কুলকুচি করবেন এভাবে দিনে দুই থেকে তিনবার কুলকুচি করলে খুব দ্রুতই আপনার দাঁতের ব্যথা ও ফোলা ভাব দূর হবে। লেবু ও পানির মিশ্রণ এর সাথে লবণ ব্যবহার করলে আরো ভালো পারফর্মেন্স পাবেন।

টি ট্রি ওয়েল-

 এই তেল খুব দ্রুতই দাঁতের মাড়ি ও ফোলা ভাব দূর করতে সাহায্য করে। এই তেল আপনার দাঁত ও মাড়িতে ভালোভাবে মালিশ করলে তিন থেকে চারদিন পরে আপনি ইনশাআল্লাহ সুস্থ হয়ে যাবেন। দাঁত ও মাড়ির ব্যথা ও ফোলা ভাব দূর করতে এই তেল ব্যবহার করুন।

৮. আক্কেল দাঁতের ব্যথা কমানোর অ্যালোপ্যাথি ঔষধ ও চিকিৎসা

আপনার সমস্যা যদি গুরুতর হয় তাহলে প্রথমে আপনাকে এক্সরে করতে হবে বা সিটি স্ক্যান করা যেতে পারে। সমস্যার ধরণ অনুযায়ী যদি গুরুতর হয় সে ক্ষেত্রে ইন্সিশন ও ড্রেনেজ অর্থাৎ আক্রান্ত স্থান কেটে রক্ত পুঁজ বের করে দেওয়া হয়। এমনকি দাঁত তুলে ফেলা দেওয়ারও পরামর্শ দেওয়া হয়।  ঔষধ হিসেবে রেজিস্টারেড চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী এন্টোবায়োটিক ব্যবহার করতে পারেন। এছাড়াও ব্যবহার করতে পারেন পেইনকিলার যা ব্যথা থেকে আপনাকে মুক্তি দিবে। 

৯. আক্কেল দাঁতের ব্যথায় হোমিও ঔষধ  আক্কেল দাঁত ব্যথ্যা কমানোর উপায়

আক্কেল দাঁতের সমস্যায় বা ব্যথায় হোমিওপ্যাথি ঔষধ হলো Merv Sol 200, Calcarea Carb 200, Mag Carb 200 ও Cilicea 200। উক্ত হোমিও ঔষধ গুলো রেজিস্টার্ড ডাক্তারের পরামর্শ অনুযায়ী ব্যবহার করবে।  

১০. আক্কেল দাঁত তুললে কি সমস্যা হয়?  আক্কেল দাঁত ব্যথ্যা কমানোর উপায়

অনেকের আক্কেল দাঁত ওঠার জন্য পর্যাপ্ত স্থান বা জায়গা থাকে না সে ক্ষেত্রে দাঁতের ব্যথা ও ইনফেকশনে দীর্ঘদিন ভুগতে হয় । একসময় এমন এক পর্যায়ে আসে যখন ডাক্তার উক্ত দাত তুলে ফেলার পরামর্শ দেন কিন্তু আমরা অনেকেই এই সিদ্ধান্তে বা ডাক্তারের পরামর্শে ভয় পেয়ে যাই কিন্তু পশ্চিমা দেশগুলোতে অধিকাংশ মানুষই আক্কেল দাঁত তুলে ফেলেন এতে তাদের কোন সমস্যা হয় না। আক্কেল দাঁত ওঠার জন্য পর্যাপ্ত জায়গা না থাকলে দীর্ঘদিন সেখানে ইনফেকশন চলতে থাকলে একসময় মৃত্যুও হতে পারে। অপরদিকে এই আক্কেল দাঁতের মানব শরীরে কোন প্রয়োজন নেই। তাই গুরুতর সমস্যায় পতিত হলে আক্কেল দাঁত তুলে ফেলা যায় বিনা দ্বিধায়।

১১. আক্কেল দাঁত অপারেশনের খরচ কত? আক্কেল দাঁত ব্যথ্যা কমানোর উপায়p

আক্কেল দাঁত গুলোর শেকর গভীরে থাকায় এগুলোর অপারেশন তুলনামূলকভাবে জটিল হয়। সামনের দিকের দাঁতগুলো তুলতে তেমন একটা জটিলতার মধ্যে পড়তে হয় না। দাঁতের অবস্থানভেদে অপারেশনের খরচ কম বেশি হয়ে থাকে। সাধারণত আক্কেল দাঁত অপারেশনের খরচ হয়ে থাকে 7 থেকে 10 হাজার টাকার মধ্যেই।

uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips uniq tips

পরিচিতদেরকে জানাতে শেয়ার করুন

0 Comments

দয়া করে নীতিমালা মেনে মন্তব্য করুন ??

অর্ডিনারি আইটি কী?