The DU Speech https://www.duspeech.com/2022/11/student-visa-london.html

স্টুডেন্ট ভিসা লন্ডন ২০২২ | লন্ডন স্টুডেন্ট ভিসা সম্পর্কে বিস্তারিত জানুন

স্টুডেন্ট ভিসা লন্ডন ২০২২ সম্পর্কে অনেকেই জানতে আগ্রহী। প্রযুক্তির ছোঁয়ায় এখন ঘরে বসেই স্টুডেন্ট ভিসা লন্ডন ২০২২ সম্পর্কে সহজেই ধারণা লাভ করা সম্ভব। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় আর্টিকেল রাইটিং সংগঠনের আজকের আর্টিকেল আমরা আপনাদের সাথে শেয়ার করব স্টুডেন্ট ভিসা লন্ডন ২০২২ সম্পর্কে।স্টুডেন্ট ভিসা লন্ডন ২০২২ সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে আমাদের আর্টিকেলটি সম্পূর্ণ পড়ুন।

আর্টিকেল সূচিপত্র (যে অংশ পড়তে চান তার ওপর ক্লিক করুন)

  1. লন্ডন স্টুডেন্ট ভিসা
  2. যুক্তরাজ্যে কেন পড়াশোনা করবেন
  3. ভিসার ধরন
  4. প্রয়োজনীয় কাগজপত্র
  5. আবেদন
  6. খরচ ও সময়
  7. ভাষার দক্ষতা
  8. স্কলারশিপ
  9. আর্টিকেল সম্পর্কিত প্রশ্ন-উত্তর
  10. লেখকের মন্তব্য

১.লন্ডন স্টুডেন্ট ভিসা | স্টুডেন্ট ভিসা লন্ডন ২০২২ 

আন্তর্জাতিক শিক্ষার্থীদের জন্য যুক্তরাজ্য সবচেয়ে জনপ্রিয় স্থান। দেশটির উচ্চশিক্ষা ব্যবস্থা বিভিন্ন খাতে শিক্ষার্থীদের দক্ষতা বাড়াতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। যুক্তরাজ্যে ১৩০টি নিবন্ধিত উচ্চশিক্ষা প্রদানকারী প্রতিষ্ঠান রয়েছে। যার মধ্যে, স্থানীয় বিশ্ববিদ্যালয় রয়েছে ১০৫টি, আন্তর্জাতিক বিশ্ববিদ্যালয় ২০টি ও বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ রয়েছে ৫টি।স্টুডেন্ট ভিসা লন্ডন ২০২২ ভিসার মাধ্যমে সেখানে গিয়ে পড়াশোনা করা সম্ভব।

২.যুক্তরাজ্যে কেন পড়াশোনা করবেন |স্টুডেন্ট ভিসা লন্ডন ২০২২ 

আন্তর্জাতিক শিক্ষার্থীদের জন্য পৃথিবীর সবচেয়ে জনপ্রিয় শহর হচ্ছে যুক্তরাজ্য। যুক্তরাজ্যে ২০০টি দেশ থেকে প্রত্যেক বছর প্রায় লক্ষাধিক শিক্ষার্থী পড়তে আসেন। স্টুডেন্ট ভিসা লন্ডন ২০২২ এ প্রত্যেকটি বিশ্ববিদ্যালয় ও বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ থেকেই উচ্চতর শিক্ষা গ্রহণ করা যায়।

যুক্তরাজ্যে আছে পৃথিবীর সবচেয়ে বহুল পঠিত লাইব্রেরি, ব্রিটিশ লাইব্রেরি। যেখানে রয়েছে প্রায় ১৫০ মিলিয়ন বই। প্রায় প্রত্যেকটি বিশ্ববিদ্যালয়েই যুগান্তকারী আবিষ্কারক রয়েছেন, যারা পেনিসিলিন, ফিঙ্গারপ্রিন্ট, ডিএনএর মতো অসাধারণ সব প্রযুক্তি আবিষ্কার করেছেন।

যুক্তরাজ্যের যে কোনো বিশ্ববিদ্যালয় থেকে গ্র্যাজুয়েটদের উচ্চ বেতনে চাকরি দেয়া হয়। পড়ালেখার পাশাপাশি পার্ট টাইম কাজের অভাব নেই। তাই স্টুডেন্ট ভিসা লন্ডন ২০২২ তে ভালো মানের আয় করতে পারবেন। হাজার হাজার বিষয় ও কোর্স থেকে বাছাই করে পড়তে পারবেন।

৩.ভিসার ধরন | স্টুডেন্ট ভিসা লন্ডন ২০২২ 

পড়াশোনা করে ক্যারিয়ার গড়ে তোলার জন্য যুক্তরাজ্যে স্টুডেন্ট ভিসা লন্ডন ২০২২ প্রচলিত আছে। যুক্তরাজ্যে মূলত তিন ধরনের স্টুডেন্ট ভিসা প্রচলিত রয়েছে। এই তিন ধরনের ভিসা থেকে আপনার প্রয়োজনমতো ভিসা বাছাই করে সেটার জন্য আবেদন করতে হবে।

জেনারেল স্টুডেন্ট ভিসা

১৬ বছরের ঊর্ধ্বে যে কোনো বয়সের একজন শিক্ষার্থী এই ধরনের ভিসার জন্য আবেদন করতে পারবেন। আবেদন করতে হবে ক্লাস শুরু হওয়ার তিন মাস পূর্বে। ছয় মাসের কম মেয়াদি কোনো কোর্স হলে এক সপ্তাহ পূর্বে যুক্তরাজ্যে পৌঁছাতে হবে এবং ছয় মাসের বেশি মেয়াদি কোনো কোর্স হলে সেক্ষেত্রে এক মাস পূর্বে যুক্তরাজ্যে পৌঁছাতে হবে।

চাইল্ড স্টুডেন্ট ভিসা

৪ থেকে ১৭ বছরের মধ্যে যে কোনো বয়সের একজন শিক্ষার্থী এই ধরনের ভিসার জন্য আবেদন করবে। অবশ্যই শিক্ষার্থীকে যুক্তরাজ্যের যে কোনো বিশ্ববিদ্যালয় বা বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ থেকে বৈধ স্পন্সরের মাধ্যমে গৃহীত হতে হবে। আবেদন করার পর তিন মাসের কম মেয়াদি কোনো কোর্স হলে সেক্ষেত্রে এক সপ্তাহ পূর্বে যুক্তরাজ্যে পৌঁছাতে হবে ও তিন মাসের বেশি মেয়াদি কোন কোর্স হলে সেক্ষেত্রে এক মাস পূর্বে যুক্তরাজ্যে পৌঁছাতে হবে।

শর্ট টার্ম স্টাডি ভিসা

যে কোনো বয়সের একজন শিক্ষার্থী এই ধরনের ভিসার জন্য আবেদন করবে। এই ধরনের কোর্সের মেয়াদ সর্বোচ্চ ১ বছর মেয়াদি হতে পারে। ভ্রমণের দিনের ওপর নির্ভর করে পৌঁছালেই চলবে। ভিসা সংক্রান্ত আরো তথ্যের জন্য যুক্তরাজ্যের সরকারি ওয়েবসাইটে ঘুরে আসতে পারেন।

৪.প্রয়োজনীয় কাগজপত্র | স্টুডেন্ট ভিসা লন্ডন ২০২২ 

স্টুডেন্ট ভিসা লন্ডন ২০২২ আবেদন করার জন্যে যেসকল সাপোর্টিং ডকুমেন্টের দরকার পড়বে সেগুলো হচ্ছে:

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান থেকে গ্রহীতা চিঠিজেনুইন টেম্পোরারি এন্ট্রান্ট (জিটিই),ব্যাংক ব্যালেন্সের প্রমাণ পত্র,স্বাস্থ্য বীমা ,(ওএসএইচসি)ভাষাগত দক্ষতার প্রমাণপত্র,অপরাধমূলক ও ফৌজদারি কাজের প্রমাণপত্র,ভিসার আবেদন ফর্ম,চারটি পাসপোর্ট আকারের ছবি,বৈধ পাসপোর্ট,ভিসা এনরোলমেন্টের ইলেকট্রনিক কনফার্মেশনের স্ক্যান কপি,অ্যাকাডেমিক ও কাজের অভিজ্ঞতার ডকুমেন্ট,টিউবারকিউলোসিস স্ক্রিনিং,ভ্রমণ সম্পর্কিত কাগজপত্র।

৫.আবেদন | স্টুডেন্ট ভিসা লন্ডন ২০২২ 

আপনি যদি শুধুমাত্র বাংলাদেশের নাগরিক হয়ে থাকেন, তাহলে যুক্তরাজ্যের সরকারি ওয়েবসাইট থেকে স্টুডেন্ট ভিসা লন্ডন ২০২২ এর জন্য আবেদন করতে পারবেন।আবেদন করার সময় বিভিন্ন দেশ ভ্রমণের অভিজ্ঞতা ও এর সাপোর্টিং ডকুমেন্টগুলোর স্ক্যান কপি যুক্ত করে দেবেন। যদি আপনার সাথে আপনার পরিবারের ভিসার জন্য আবেদন করে থাকেন, তাহলে তাদের তথ্যও যোগ করতে হবে।

আপনার বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্লাস শুরু হওয়ার কমপক্ষে তিন মাস পূর্বেই ভিসার আবেদন করা উচিত। তবে আবেদনের তারিখ সেদিন থেকে শুরু হবে, যেদিন আপনি আবেদনের ফি প্রদান করবেন। তারপর আপনাকে যুক্তরাজ্য স্টুডেন্ট ভিসা লন্ডন ২০২২ ভিসা অ্যাপ্লিকেশন সেন্টারে ইমিগ্রেশন অফিসার দ্বারা সাক্ষাৎকারের জন্য ডাকা হতে পারে। সেখানে আপনার বিভিন্ন বিষয়ের দক্ষতার প্রমাণপত্র গ্রহণ করা হবে।

ভিসার জন্য আবেদন করার পর, ইউনাইটেড কিংডম ভিসা অ্যান্ড ইমিগ্রেশনে (UKVI) যোগাযোগ করবেন। সেখানে ভিসার আবেদন সম্পূর্ণ করার জন্য তারা আপনার ফিঙ্গারপ্রিন্ট ও ছবি তুলবে। এই প্রক্রিয়াকে ‘বায়োমেট্রিক ইনফরমেশন’ বলে। যেকোনো ধরনের ভিসার জন্যই এই প্রক্রিয়াটি সম্পন্ন করতে হয়।

৬. খরচ ও সময় | স্টুডেন্ট ভিসা লন্ডন ২০২২ 

স্টুডেন্ট ভিসা লন্ডন ২০২২ আবেদন করার সাথে সাথেই যত তাড়াতাড়ি সম্ভব ভিসার আবেদন ফি জমা দিতে হবে। এই ফি জমা দেয়ার প্রক্রিয়াটাও সম্পূর্ণ অনলাইনেই করা হবে। এক্ষেত্রে ক্রেডিট অথবা ডেবিট কার্ডের মাধ্যমে এই ফি জমা দিতে হবে। বর্তমানে অনেক ধরনের ট্র্যাভেল এজেন্সি ও ভিসা অ্যাপ্লিকেশন সেন্টার আছে, যাদের মাধ্যমে এই কাজ করানো যায়। যে কোনো ধরনের ভিসার আবেদন ফি ৩২০ পাউন্ড থেকে ৩৭০ পাউন্ডের মধ্যে হয়ে থাকে।বায়োমেট্রিক ইনফরমেশনের জন্য ৩০০০ টাকা থেকে ৫০০০ টাকা পর্যন্ত খরচ হতে পারে।

স্টুডেন্ট ভিসা লন্ডন ২০২২ ভিসা আবেদন জমা দেওয়ার পর তিন সপ্তাহে (সরকারি ছুটির দিন এবং সাপ্তাহিক ছুটির দিন ব্যতীত 15 কার্যদিবস) প্রক্রিয়া করা হয়। শিক্ষার্থীরা আবেদন কেন্দ্রে কল করে যেকোন বিলম্ব সম্পর্কে জানতে পারে, যেটা ভারতে ইউকে বর্ডার এজেন্সি জন্য ভিসা আবেদন কেন্দ্র পরিচালনা করে, (040) 66305600 (সোমবার-শুক্রবার, সকাল 8টা থেকে বিকাল 5 টা পর্যন্ত)। আবেদন কারীরা তাদের ভিসার আবেদন ট্র্যাক রাখতে এসএমএস সতর্কতা পরিষেবা বা তাদের অনলাইন মনিটরিং সিস্টেম ব্যবহার করতে পারেন।

ভিসার আবেদন ফি জমা দেয়ার পর আপনাকে একটি রেফারেন্স নম্বর দেয়া হবে। যেটা শুরু হবে জিডব্লিউএফ (GWF) দ্বারা। এটা সংরক্ষণ করে রাখুন, পরবর্তীতে ইউকেভিআইয়ে কাজে লাগতে পারে। 

৭.ভাষার দক্ষতা | স্টুডেন্ট ভিসা লন্ডন ২০২২ 

স্টুডেন্ট ভিসা লন্ডন ২০২২ এর যাওয়ার জন্য IELTS ভাষার দক্ষতা লাগে। এখানে 10 মার্ক আছে। IELTS এ কত লাগবে সেটাই আপনাদের এখন দেখাবো এবং IELTS নির্ধারণ করা যেটি আছে, সেটি যদি আপনি করতে পারেন তাহলে আপনি বাকি 10 পয়েন্ট পেয়ে যাবেন। সাধারণত ব্যাচেলর এবং এর উপরের পর্যায়ে লেখাপড়া করার জন্য ইংলিশে বি-২ বা এর সমমান স্কোর লাগবে। বাংলাদেশের সর্বাধিক প্রচলিত IELTS এর 5.5 থেকে 6 এর সমান। আবেদনকারী যদি ইংরেজিতে কম দক্ষ হন অথবা যুক্তরাজ্যে মূল কোর্সের সঙ্গে ইংরেজি ভাষা শিক্ষা কোর্স আসতে চান তবে ইংলিশ লেভেল বি-1 লাগবে যা IELTS এর 4 বা 5 এর সমান।

৮.স্কলারশিপ | স্টুডেন্ট ভিসা লন্ডন ২০২২ 

কমনওয়েলথ স্কলারশিপ বাংলাদেশ থেকে আন্তর্জাতিক ছাত্রদের স্টুডেন্ট ভিসা লন্ডন ২০২২ স্কলারশিপ অফার করে। এই বৃত্তিটি শুধুমাত্র সেই ছাত্রদের জন্য সীমাবদ্ধ যারা যুক্তরাজ্যে পিএইচডি এবং স্নাতকোত্তর ডিগ্রির জন্য আবেদন করছেন। 

শিক্ষার্থীদের জন্য সীমিত সংখ্যক স্লট উপলব্ধ রয়েছে। বৃত্তির জন্য সবচেয়ে যোগ্য শিক্ষার্থীকে বেছে নিতে শিক্ষার্থীদের শিক্ষার ইতিহাস গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। যুক্তরাজ্যের অনেক বিশ্ববিদ্যালয় বাংলাদেশী শিক্ষার্থীদের জন্য £10,000 পর্যন্ত বৃত্তি প্রদান করে। আপনি এই সম্পর্কে আরও তথ্য পেতে আমাদের সাথে যোগাযোগ করতে পারেন।

৯. আর্টিকেল সম্পর্কিত প্রশ্ন-উত্তর | স্টুডেন্ট ভিসা লন্ডন ২০২২ 

স্টুডেন্ট ভিসা লন্ডন ২০২২ সম্পর্কিত কিছু প্রশ্ন এবং উত্তর।
প্রশ্ন ১:ভিসার আবেদন ফি কত?
উত্তর:যে কোনো ধরনের ভিসার আবেদন ফি ৩২০ পাউন্ড থেকে ৩৭০ পাউন্ডের মধ্যে হয়ে থাকে
প্রশ্ন ২:যুক্তরাজ্যে যাওয়ার জন্য IELTS ভাষার দক্ষতা লাগে কিনা?
উত্তর:যুক্তরাজ্যে যাওয়ার জন্য IELTS ভাষার দক্ষতা লাগে।
প্রশ্ন ৩: যুক্তরাজ্যের বিশ্ববিদ্যালয় বাংলাদেশী শিক্ষার্থীদের জন্য  বৃত্তি প্রদান করে কি না?
উত্তর:যুক্তরাজ্যের অনেক বিশ্ববিদ্যালয় বাংলাদেশী শিক্ষার্থীদের জন্য £10,000 পর্যন্ত বৃত্তি প্রদান করে।

১০. লেখকের মন্তব্য | স্টুডেন্ট ভিসা লন্ডন ২০২২ 

প্রিয় পাঠক, আজকে আমরা আপনাদের সাথে স্টুডেন্ট ভিসা লন্ডন ২০২২ নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করেছি। স্টুডেন্ট ভিসা লন্ডন ২০২২ সম্পর্কে অথবা যে কোন বিষয়ে আপনাদের কোন অভিযোগ বা মতামত নিচের কমেন্ট বক্সে লিখে জানাবেন। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় আর্টিকেল সংগঠন The DU Speech এর পাশেই থাকবেন।স্টুডেন্ট ভিসা লন্ডন ২০২২ সম্পর্কে হোক বা যেকোন বিষয়ে আমরা আপনার মতামতকে গুরুত্বের সাথে বিবেচনা করব।

পরিচিতদেরকে জানাতে শেয়ার করুন

0 Comments

দয়া করে নীতিমালা মেনে মন্তব্য করুন ??

অর্ডিনারি আইটি কী?