The DU Speech https://www.duspeech.com/2023/01/first-world-war-death.html

প্রথম বিশ্বযুদ্ধে কত মানুষ মারা যায়? | প্রথম বিশ্বযুদ্ধের কারণ সম্পর্কে জানুন

প্রথম বিশ্বযুদ্ধে কত মানুষ মারা যায় এবং প্রথম বিশ্বযুদ্ধের কারণ সম্পর্কে আপনারা অনেকেই জানতে আগ্রহী। তাই আজকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় আর্টিকেল রাইটিং সংগঠনের পক্ষ থেকে আমরা আলোচনা করবো প্রথম বিশ্বযুদ্ধে কত মানুষ মারা যায়? প্রথম বিশ্বযুদ্ধের কারণ নিয়ে। প্রথম বিশ্বযুদ্ধে কত মানুষ মারা যায়? প্রথম বিশ্বযুদ্ধের কারণ এবং প্রথম বিশ্বযুদ্ধ সম্পর্কে বিস্তারিত সকল তথ্য জানতে আজকের আর্টিকেলটি ভালোভাবে পড়ুন। আশা করছি এই সম্পর্কে আপনারা বিস্তারিত একটি ধারণা লাভ করতে পারবেন।

আর্টিকেল সূচিপত্র (যে অংশ পড়তে চান তার ওপর ক্লিক করুন)

  1. প্রথম বিশ্বযুদ্ধ
  2. প্রথম বিশ্বযুদ্ধের কারণ
  3. প্রথম বিশ্বযুদ্ধে কত মানুষ মারা যায়
  4. প্রথম বিশ্বযুদ্ধের ফলাফল
  5. আর্টিকেল সম্পর্কিত প্রশ্ন-উত্তর
  6. লেখকের মন্তব্য

১.প্রথম বিশ্বযুদ্ধ | প্রথম বিশ্বযুদ্ধে কত মানুষ মারা যায়? | প্রথম বিশ্বযুদ্ধের কারণ

প্রথম বিশ্বযুদ্ধ  WW1, এছাড়াও বিশ্বযুদ্ধ-১, বা মহাযুুুুদ্ধ হিসাবে পরিচিত, একটি বৈশ্বিক যুদ্ধ যা ১৯১৪ সালের ২৮ জুলাই ইউরোপে শুরু হয় এবং ১১ নভেম্বর ১৯১৮ পর্যন্ত স্থায়ী ছিল। ৬ কোটি ইউরোপীয়সহ আরো ৭ কোটি সামরিক বাহিনীর সদস্য ইতিহাসের অন্যতম বৃহত্তম এই যুদ্ধে একত্রিত হয়। এটি ছিল ইতিহাসের সবচেয়ে ভয়াবহ সংঘাতের একটি এবং এর ফলে পরবর্তী সময়ে এর সাথে যুক্ত দেশগুলোর রাজনীতিতে বিরাট পরিবর্তন হয়। অনেক দেশে এটি বিপ্লবেরও সূচনা করে।

১৯১৪ সালের ১৮ জুন বসনিরাজধানী সারায়েভো শহরে অস্ট্রিয়ার যুবরাজ আর্চডিউক ফ্রাঞ্জ ফার্ডিনান্ড এক সার্বের গুলিতে নিহত হন। অস্ট্রিয়া-হাঙ্গেরি এই হত্যাকাণ্ডের জন্য সার্বিয়াকে দায়ী করে এবং ওই বছরের ২৮ জুলাই সার্বিয়ার বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করে। এ যুদ্ধে দু'দেশের বন্ধু রাষ্ট্রগুলো ধীরে ধীরে জড়িয়ে পড়ে। এতে যোগ দিয়েছিল সে সময়ের অর্থনৈতিকভাবে শক্তিশালী সকল দেশ। এভাবে প্রথম বিশ্বযুদ্ধের (১৯১৪-১৯১৮) সূচনা হয়। তবে অস্ট্রিয়ার যুবরাজের হত্যাকাণ্ডই প্রথম বিশ্বযুদ্ধের একমাত্র কারণ ছিল না। উনিশ শতকে শিল্পে বিপ্লবের কারণে সহজে কাঁচামাল সংগ্রহ এবং তৈরি পণ্য বিক্রির জন্য উপনিবেশ স্থাপনে প্রতিযোগিতা এবং আগের দ্বন্দ্ব-সংঘাত ইত্যাদিও প্রথম বিশ্ব যুদ্ধের কারণ। প্রথম বিশ্বযুদ্ধে একপক্ষে ছিল উসমানীয় সাম্রাজ্য, অস্ট্রিয়া-হাঙ্গেরি, জার্মানি ও বুলগেরিয়া। যাদের বলা হতো কেন্দ্রীয় শক্তি। আর অপরপক্ষে ছিল সার্বিয়া, রাশিয়া, যুক্তরাজ্য, ফ্রান্স, জাপান, ইতালি, রুমানিয়া ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। যাদের বলা হতো মিত্রশক্তি।


২.প্রথম বিশ্বযুদ্ধের কারণ | প্রথম বিশ্বযুদ্ধে কত মানুষ মারা যায়? | প্রথম বিশ্বযুদ্ধের কারণ

১৯১৪ খ্রিস্টাব্দের ২৮ শে জুলাই থেকে ১৯১৯ খ্রিস্টাব্দের ১১ ই নভেম্বর পর্যন্ত সংঘটিত প্রথম বিশ্বযুদ্ধ সারাবিশ্বে ব্যাপক প্রভাব বিস্তার করেছিল।যার ফলে বিশ্বের প্রতিটি দেশ ক্ষুদ্র বা বৃহৎ প্রত্যক্ষ অথবা পরোক্ষভাবে প্রথম বিশ্বযুদ্ধের সঙ্গে জড়িত হয়ে পড়েছিল। কোন একটি নির্দিষ্ট কারণের জন্য কিন্তু এই প্রথম বিশ্বযুদ্ধ সংঘটিত হয়নি।এই বিশ্বযুদ্ধ সংঘটিত হওয়ার পেছনে একাধিক কারণ বিদ্যমান ছিল। এগুলো হলো:

অতৃপ্ত জাতীয়তাবাদ

উনবিংশ শতকের শেষ দিক থেকে বিশ শতকের সূচনা কাল পর্যন্ত ইউরোপীয় রাষ্ট্র গুলির মধ্যে প্রবল ঔপনিবেশিক প্রতিদ্বন্দ্বীতা, প্রতিদ্বন্দিতা পারস্পরিক সন্দেহ ও বিদ্বেষ, যুদ্ধাস্ত্র নির্মাণের প্রতিযোগিতা ও অতৃপ্ত জাতীয়তাবাদ মহাদেশের রাজনৈতিক পরিবেশকে বিষিয়ে তুলেছিল।সেডানের যুদ্ধে জার্মানীর হাতে পরাজিত ফ্রান্স, অস্ট্রিয়ার অধিকারে থাকা ইতালি ও ভাষাভাষী অঞ্চল, স্লেজউইগ জার্মানির অন্তর্ভুক্ত অধিবাসী বৃন্দ, বলকান অঞ্চল, ইংল্যান্ডের রাজনৈতিক অধিকার থাকা আয়ারল্যান্ড, অস্ট্রিয়ার অন্তর্ভুক্ত চেক, পোল, স্লাভ প্রভৃতি জাতিগোষ্ঠী গুলো আত্মনিয়ন্ত্রণের দাবিতে সোচ্চার হয়ে ওঠে।

উগ্র জাতীয়তাবাদ

এই সময় কালে ইউরোপে এক ধরনের উগ্র স্বার্থপর ও সংকীর্ণ জাতীয়তাবাদের উদ্ভব হয়। প্রতিটি জাতি নিজের দেশ ও জাতিকে শ্রেষ্ঠ বলে মনে করতে থাকে এবং অন্যান্য জাতি তথা দেশ কে পদানত করে উগ্র ও সংকীর্ণ জাতীয়তাবাদ প্রচার করে নিজেদের শ্রেষ্ঠত্ব প্রতিষ্ঠায় সচেষ্ট হলে বিভিন্ন জাতির মধ্যে তিব্র বিদ্বেষ ও জাতি বৈষম্যের সৃষ্টি হয়।

জার্মানি ও ইতালি অতৃপ্তি

ইংল্যান্ড ফ্রান্স রাশিয়া পর্তুগাল স্পেন প্রভৃতি দেশে শিল্প বিপ্লব আগে শুরু হওয়ায় তারা বহু আগেই উপনিবেশ বিস্তারে আগ্রহী হয়ে উঠেছিল। ফলে জার্মানি ও ইতালি অতৃপ্ত ছিল, এদের এই অতৃপ্ত বাসনা পরবর্তীকালে প্রথম বিশ্বযুদ্ধের অন্যতম একটি কারণ হয়ে দেখা দেয়।

সংবাদ মাধ্যমের ভূমিকা

বিশ্বের প্রতিটি গুরুত্বপূর্ণ ঘটনার পেছনে সংবাদপত্র একটি বিশেষ অবদান রেখে চলে।প্রথম বিশ্বযুদ্ধ ক্ষেত্রেও সংবাদপত্রের বা সংবাদমাধ্যমের ভূমিকার ব্যতিক্রম ঘটেনি। প্রথম বিশ্বযুদ্ধের নেপথ্যে সংবাদমাধ্যমের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা ছিল। একশ্রেণীর সংবাদপত্র মিথ্যা বিকৃত দায়িত্বজ্ঞানহীন সংবাদ পরিবেশনের মাধ্যমে জনমতকে প্রভাবিত করে এবং সমগ্র বিশ্বজুড়ে এক যুদ্ধের পরিবেশ তৈরি করে দেয়। যার ফলস্বরূপ প্রথম বিশ্বযুদ্ধ শুরু হয়।

আন্তর্জাতিক সংকট

ইংল্যান্ড ও ফ্রান্স যথাক্রমে মিশর ও মরক্কোর ওপর কর্তৃত্ব প্রতিষ্ঠা করলে জার্মানির স্বার্থ বিপন্ন হওয়ার আশঙ্কায় জার্মানি প্রতিবাদ করলে মরক্কো সংকট সৃষ্টি হয়। ১৯১১ খ্রিস্টাব্দের আগাদির ঘটনা এবং অস্ট্রিয়া ও রাশিয়ার মধ্যে সৃষ্টি হওয়া বলকান প্রথম বিশ্বযুদ্ধকে অনিবার্য করে তুলেছিল।

বাণিজ্যিক ও ঔপনিবেশিক প্রতিদ্বন্দ্বীতা

শিল্প বিপ্লবের ফলে দেশীয় শিল্পপতিও পুঁজিপতিদের হাতে প্রচুর মূলধন সঞ্চিত হয়। এই বিপুল মূলধন বিনিয়োগের জন্য, কাঁচামাল সংগ্রহ ও উদ্বৃত্ত পণ্য বিক্রির জন্য শিল্পপতি পুঁজিপতিরা নিজ নিজ দেশের সরকারের ওপর চাপ বাড়াতে থাকে। যার ফলে সমগ্র বিশ্বজুড়ে বিশ্বযুদ্ধের পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়।

প্রত্যক্ষ কারণ - সেরাজেভো হত্যাকাণ্ড

অস্ট্রো-রাশিয়া, অস্ট্রো-সার্বিয়া বিভাগ যখন বলকান অঞ্চল কে বারুদের স্তূপে পরিণত করেছিল ঠিক তখনই ১৯১৪ খ্রিস্টাব্দে আঠাশে জুন ঘটে গেল সেরাজেভো হত্যাকাণ্ড। অস্ট্রিয়ার যুবরাজ আর্কাডিউক ফ্রান্সিস ফার্দিনান্দ পত্নী সোফিয়া কে নিয়ে সেরাজেভো তে বেড়াতে এলে স্লাভ সন্ত্রাসবাদি সংস্থা ব্ল্যাক হ্যান্ড বা ইউনিয়ন অফ ডেথ এর সদস্য ন্যাভরিশো প্রিন্সেপ রাজপথে প্রকাশ্য দিবালোকে তাদের হত্যা করলে অস্ট্রিয়া ও সার্বিয়ার রাজধানী বেলগ্রেড আক্রমণ করে আর সার্বিয়া অস্ট্রিয়ার মধ্যে শুরু হওয়া যুদ্ধ মাত্র এক সপ্তাহের মধ্যে বিশ্বযুদ্ধের আকার ধারণ করে।


৩.প্রথম বিশ্বযুদ্ধে কত মানুষ মারা যায় |  প্রথম বিশ্বযুদ্ধে কত মানুষ মারা যায়? | প্রথম বিশ্বযুদ্ধের কারণ 

প্রথম বিশ্বযুদ্ধে সামরিক ও বেসামরিক মিলিয়ে মোট ৪ কোটি বা ৪০ মিলিয়ন মানুষ হতাহতের ঘটনা ঘটে। সামরিক কর্মীদের মধ্যে আনুমানিক ১৫ থেকে ১৯ মিলিয়ন নিহত, এবং প্রায় ২৩ মিলিয়ন আহত হয়। এটি সবচেয়ে মারাত্মক সংঘাতের ইতিহাস সৃষ্টি করে।

মোট মৃত্যু সংখ্যা ৯ থেকে ১১ মিলিয়ন সামরিক কর্মীর মাঝে অন্তর্ভুক্ত ছিল । বেসামরিক নাগরিকের মৃত্যুর সংখ্যা ছিল প্রায় ৮ মিলিয়ন। যুদ্ধ-সম্পর্কিত দুর্ভিক্ষ এবং রোগের কারণে মৃত্যু হয় প্রায় ৬ মিলিয়ন মানুষের। ট্রিপল এনটেঞ্জ (মিত্র হিসাবেও পরিচিত) প্রায় মিলিয়ন সামরিক কর্মী এবং কেন্দ্রীয় শক্তি প্রায় ৪ মিলিয়ন লোককে হারিয়েছে। কমপক্ষে ২ মিলিয়ন লোক রোগজনিত নানা ঝটিলতায় মারা গিয়েছিল । এবং ৬ মিলিয়ন লোক নিখোঁজ হয়েছিল। তাদেরকে পরবর্তীতে মৃত বলে ধারণা করা হয়েছিল । এই সম্পুর্ণ নিবন্ধটি সরকারি প্রকাশিত উৎস সমূহের ভিত্তিতে যুদ্ধরত শক্তিগুলির হতাহতের তালিকাকে প্রদর্শন করে।

প্রথম বিশ্বযুদ্ধের প্রায় দুই-তৃতীয়াংশ মানুষের মৃত্যুর কারণ ছিলো সামরিক যুদ্ধ। ঊনবিংশ শতাব্দীতে সংঘটিত দ্বন্দ্বের বিপরীতে বেশিরভাগ মৃত্যুর কারণ ছিল রোগ। তা সত্ত্বেও, ১৯১৮ ফ্লু মহামারী এবং যুদ্ধ বন্দীদের হিসাবে মারা যাওয়ার পরেও এই রোগের ফলে সমস্ত যুদ্ধবিরোধীর জন্য মোট সামরিক মৃত্যুর প্রায় এক তৃতীয়াংশ ঘটে।

৪.প্রথম বিশ্বযুদ্ধের ফলাফল | প্রথম বিশ্বযুদ্ধে কত মানুষ মারা যায়? | প্রথম বিশ্বযুদ্ধের কারণ

প্রথম বিশ্বযুদ্ধের পর চারটি সাম্রাজ্যের পতন ঘটে। রোমান সাম্রাজ্য বা রুশ সাম্রাজ্য ১৯১৭ সালে, জার্মান ও অস্ট্রো-হাঙ্গেরীয় সাম্রাজ্য ১৯১৮ সালে এবং উসমানীয় সাম্রাজ্য ১৯২২ সালে। অস্ট্রিয়া, চেকোস্লোভাকিয়া, এস্তোনিয়া, হাঙ্গেরি, লাটভিয়া, লিথুয়ানিয়া এবং তুরস্ক স্বাধীন রাষ্ট্র হিসেবে গড়ে ওঠে। উসমানীয় সাম্রাজ্যের অধীনে থাকা অধিকাংশ আরব এলাকা ব্রিটিশ ও ফরাসি সাম্রাজ্যের অধীনে আসে। ১৯১৭ সালে বলশেভিকরা রাশিয়ার এবং ১৯২২ সালে ফ্যাসিবাদীরা ইতালির ক্ষমতায় আরোহণ করে। এ যুদ্ধের অন্য ফল হলো ইনফ্লুয়েঞ্জায় বিশ্বব্যাপী ৫ কোটি মানুষের মৃত্যু হয়।

৫. আর্টিকেল সম্পর্কিত প্রশ্ন-উত্তর | প্রথম বিশ্বযুদ্ধে কত মানুষ মারা যায়? | প্রথম বিশ্বযুদ্ধের কারণ

প্রশ্ন ১: প্রথম বিশ্বযুদ্ধ কবে শুরু হয়?

উত্তর:১৯১৪ সালের ২৮ জুলাই।

প্রশ্ন ২:প্রথম বিশ্বযুদ্ধ কবে শেষ হয়?

উত্তর:১১ নভেম্বর,১৯১৮।

প্রশ্ন ৩: প্রথম বিশ্বযুদ্ধের প্রায় দুই-তৃতীয়াংশ মানুষের মৃত্যুর কারণ কি ছিল?

উত্তর: সামরিক যুদ্ধ।

প্রশ্ন ৪:ফ্যাসিবাদীরা ইতালির ক্ষমতায় আরোহণ করে কখন?

উত্তর:১৯২২ সালে।

৬. লেখকের মন্তব্য | প্রথম বিশ্বযুদ্ধে কত মানুষ মারা যায়? | প্রথম বিশ্বযুদ্ধের কারণ

আজকে আমরা প্রথম বিশ্বযুদ্ধে কত মানুষ মারা যায়?প্রথম বিশ্বযুদ্ধের কারণ নিয়ে আপনাদের সাথে বিস্তারিত আলোচনা করলাম। প্রথম বিশ্বযুদ্ধে কত মানুষ মারা যায় এবং প্রথম বিশ্বযুদ্ধের কারণ সম্পর্কে সকল কিছু আমরা আপনাদের সামনে তুলে ধরার চেষ্টা করেছি। আশা করছি প্রথম বিশ্বযুদ্ধে কত মানুষ মারা যায় এবং প্রথম বিশ্বযুদ্ধের কারণ সম্পর্কে আপনারা সকল কিছু বুঝতে পেরেছেন।এই সম্পর্কে আপনাদের যদি কোন প্রশ্ন থাকে তাহলে সেটি আমাদের জানাতে পারেন। যে কোন বিষয় সম্পর্কে জানতে আমাদের ওয়েবসাইট ভিজিট করবেন।
আর্টিকেলটি লিখেছেন: নুসরাত জাহান হিভা 
পড়াশোনা করছেন: রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় 
লেখকের জেলার নাম: কুমিল্লা



ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় আর্টিকেল রাইটিং সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা
মো. আব্দুল্লাহ আল মামুন
পড়াশোনা করছেন:  ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়। 
জেলা: নাটোর

পরিচিতদেরকে জানাতে শেয়ার করুন

0 Comments

দয়া করে নীতিমালা মেনে মন্তব্য করুন ??

অর্ডিনারি আইটি কী?