The DU Speech https://www.duspeech.com/2022/12/dubai-to-dhaka-flight.html

দুবাই টু বাংলাদেশ ফ্লাইট রেট ও ভাড়া ২০২৩

দুবাই টু বাংলাদেশ ফ্লাইট রেট ও ভাড়া ২০২৩ সম্পর্কে আপনারা অনেকেই সঠিক তথ্য জানেন না। দুবাই টু বাংলাদেশ ফ্লাইট রেট ও ভাড়া ২০২৩ সম্পর্কে আপনারা অনেকেই আমাদের কাছে জানতে চেয়েছেন। তাই দুবাই টু বাংলাদেশ ফ্লাইট রেট ও ভাড়া ২০২৩ সম্পর্কে সকল খুঁটিনাটি তথ্য নিয়ে আজকে আপনাদের সাথে আলোচনা করবো। বাংলাদেশ থেকে দুবাইয়ের ফ্লাইট ভাড়া কত এবং বাংলাদেশ থেকে দুবাই যেতে কত সময় লাগে এ সকল তথ্য নিয়ে আজকে আলোচনা করা হবে। সুতরাং এ সম্পর্কিত সকল তথ্য ভালোভাবে জানতে আজকের আর্টিকেলটি সম্পূর্ণ পড়ুন।

আর্টিকেল সূচিপত্র (যে অংশ পড়তে চান তার ওপর ক্লিক করুন)

  1. বাংলাদেশ বিমান
  2. বাংলাদেশ থেকে দুবাইয়ের দূরত্ব
  3. বাংলাদেশ থেকে দুবাই যেতে কত সময় লাগে
  4. দুবাই টু বাংলাদেশ ফ্লাইট ভাড়া
  5. জনপ্রিয় এয়ারলাইন্স
  6. লেখকের মন্তব্য

১.বাংলাদেশ বিমান | দুবাই টু বাংলাদেশ ফ্লাইট রেট ও ভাড়া ২০২৩

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স, যা সাধারণত বিমান নামে পরিচিত, বাংলাদেশের একমাত্র সরকারি এবং জাতীয় পতাকাবাহী বিমান পরিবহন সংস্থা। এটি প্রধানত ঢাকায় অবস্থিত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে কার্যক্রম পরিচালনা করে। এছাড়াও চট্টগ্রামের শাহ আমানত আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর এবং সিলেটের ওসমানী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকেও এর কার্যক্রম পরিচালিত হয়। প্রতিষ্ঠানটি আন্তর্জাতিক রুটের পাশপাশি অভ্যন্তরীণ রুটেও যাত্রী এবং মালামাল পরিবহন করে। বিশ্বের প্রায় ৭০ টি দেশের সাথে বিমানের বিমান সেবা চুক্তি রয়েছে এবং বর্তমানে ১৬টি দেশে এর কার্যক্রম পরিচালনা করছে। বিমানের প্রধান কার্যালয়ের নাম বলাকা ভবন, যেটি ঢাকার উত্তরাঞ্চলে কুর্মিটোলায় অবস্থিত। বিমান বাংলাদেশের যাত্রীদের অধিকাংশই হজ্জযাত্রী, পর্যটক, অভিবাসী এবং প্রবাসী বাংলাদেশি এবং সহায়ক সংস্থাগুলির ক্রিয়াকলাপসমূহ বিমান পরিবহন সংস্থার কর্পোরেট ব্যবসায়ের একটি অবিচ্ছেদ্য অঙ্গ গঠন করে। ব্যাপক সংখ্যক বিদেশী পর্যটক, দেশীয় পর্যটক এবং প্রবাসী বাংলাদেশি ভ্রমণকারীদের সেবা প্রদানের জন্য দেশের পরিবহন খাতে 8% বার্ষিক প্রবৃদ্ধির হারের অভিজ্ঞতা অর্জনকারী বাংলাদেশ বিমানের সাথে অন্যান্য বাংলাদেশি বেসরকারী বিমান সংস্থাগুলির প্রতিযোগিতামূলক সম্পর্ক বিদ্যমান।

১৯৭২ সালে প্রতিষ্ঠা হওয়ার পর বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স ১৯৯৬ পর্যন্ত দেশে উড়োজাহাজ খাতের একক সংস্থা হিসেবে ব্যবসা চালায়। বিভিন্ন সময়ে উড়োজাহাজ বহর ও গন্তব্য বৃদ্ধির চেষ্টা অব্যাহত রাখলেও দুর্নীতি আর অদক্ষতার জন্য বিমান বার বার পিছিয়ে পড়ে। বাংলাদেশ বিমান তার সুসময়ে সর্বোচ্চ ২৯টি গন্তব্যে তাদের কার্যক্রম পরিচালনা করত যা পশ্চিমে নিউ ইয়র্ক শহর থেকে পূর্বে টোকিও পর্যন্ত বিস্তৃত ছিল। ২০০৭ সালের আগ পর্যন্ত বিমান পুরোপুরি একটি সরকার নিয়ন্ত্রিত সংস্থা ছিল যেটি সে বছরের জুলাই মাসের ২৯ তারিখ তত্ত্বাবধায়ক সরকারের আমলে পাবলিক লিমিটেড কোম্পানিতে রুপান্তরিত হয়। কোম্পানিতে রূপান্তরিত হওয়ার পর কর্মকর্তা-কর্মচারীর সংখ্যা কমিয়ে আনার পাশাপাশি এর উড়োজাহাজ বহর আধুনিকায়নের জন্য পদক্ষেপ নেয়া হয়। ২০০৮ সালে বিমান সংস্থাটি বোয়িং কোম্পানির সাথে দশটি বিকল্পের পাশাপাশি নতুন দশটি বিমানের জন্য চুক্তি করে। নতুন উড়োজাহাজ হাতে পাওয়ার পর বিমান তার গন্তব্যের সংখ্যা বৃদ্ধি এবং ফ্লাইট চলাকালীন ইন্টারনেট/ওয়াই-ফাই, মোবাইল যোগাযোগ এবং টেলিভিশন দেখার সুবিধার মতো যাত্রীসুবিধাদি উন্নত করেছে।

ইউরোপিয়ান এভিয়েশন সেফটি এজেন্সি নিরাপদ সংস্থা হিসেবে বিমান বাংলাদেশকে স্বীকৃতি দিয়েছে। এছাড়াও আইএটিএ-এর নিরাপত্তা নিরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়। এরপর বিমান, এশিয়া এবং ইউরোপে তাদের পূর্ববর্তী কয়েকটি গন্তব্যে পুনরায় ফ্লাইট চালু করে। সাম্প্রতিক সময়ে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স তাদের নতুন পরিচালনা দলের অধীনে সময়োপযোগের পাশাপাশি অন-টাইম ফ্লাইটের কর্মক্ষমতায় উল্লেখযোগ্য উন্নতি করে।

২.বাংলাদেশ থেকে দুবাইয়ের দূরত্ব | দুবাই টু বাংলাদেশ ফ্লাইট রেট ও ভাড়া ২০২৩

ঢাকা থেকে দুবাই এর দূরত্ব ৩ হাজার ৫৪৯ কিলোমিটার। ঢাকা থেকে দুবাই ৩ হাজার ৫৪৯ কিলোমিটার দূরত্ব অতিক্রম করতে সময় লাগে গড়ে ৫ ঘন্টা ৪০ মিনিট। কোন ধরনের বিমানের ত্রুটি ছাড়াই এই সময়ের মধ্যে ঢাকা থেকে দুবাই এয়ারপোর্টে পৌঁছানো সম্ভব।

৩. বাংলাদেশ থেকে দুবাই যেতে কত সময় লাগে | দুবাই টু বাংলাদেশ ফ্লাইট রেট ও ভাড়া ২০২৩

ঢাকা থেকে দুবাই সরাসরি ফ্লাইটের দ্রুততম ফ্লাইট সময় ৫ ঘন্টা ১৫ মিনিট। গড় ফ্লাইট সময় ৫ ঘন্টা ৩৭ মিনিট। স্টপওভার সহ ফ্লাইটের জন্য দ্রুততম ফ্লাইট সময় ৭ ঘন্টা ১০ মিনিট। ঢাকা থেকে দুবাইয়ের মধ্যে ফ্লাইটের দূরত্ব ৩৫৪৯ কিলোমিটার। ৪টি এয়ারলাইন্স রয়েছে যারা ঢাকা থেকে দুবাই সরাসরি ফ্লাইট অফার করে। ঢাকা থেকে দুবাই যাওয়ার জন্য সবচেয়ে জনপ্রিয় এয়ারলাইন হল এমিরেটস।

৪.দুবাই টু বাংলাদেশ ফ্লাইট ভাড়া | দুবাই টু বাংলাদেশ ফ্লাইট রেট ও ভাড়া ২০২৩

ঢাকা-দুবাই রুটে ওয়ানওয়ের জন্য সর্বনিম্ন ভাড়া ৫৪ হাজার ৯৯৯ টাকা । রিটার্ন ভাড়া ৭৩ হাজার টাকা । দুবাই-ঢাকা রুটে ওয়ানওয়ের জন্য সর্বনিম্ন ভাড়া এক হাজার ৬৭০ এইডি এবং রিটার্ন ভাড়া ২ হাজার ৭৫৩ এইডি নির্ধারণ করা হয়েছে। ভাড়ায় সব ধরনের ট্যাক্স ও সারচার্জ অন্তর্ভুক্ত।

বিজনেস ক্লাসের জন্য ঢাকা-দুবাই রুটে ওয়ানওয়ে ৭৯ হাজার ২০০ টাকা এবং রিটার্ন ভাড়া এক লাখ ৫৩ হাজার ৫২৬ টাকা। অপরদিকে দুবাই-ঢাকা রুটে বিজনেস ক্লাসের ওয়ানওয়ে ভাড়া দুই হাজার ৬২০ এইডি এবং রিটার্ন ভাড়া চার হাজার ৪৫৩ এইডি।

১৬৪ আসনের বোয়িং ৭৩৭-৮০০ এয়ারক্রাফট দিয়ে দুবাই রুটের ফ্লাইটগুলো পরিচালিত হবে।বর্তমানে ইউএস-বাংলার বিমান বহরে ৪টি বোয়িং ৭৩৭-৮০০, ছয়টি ব্র্যান্ডনিউ এটিআর ৭২-৬০০সহ মোট তেরটি এয়ারক্রাফট রয়েছে।

বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকা হতে ডুবাই বিমান ভাড়া এক একটি কোম্পানি একেকরকম নিয়ে থাকে। বিমানের টিকেটের ক্ষেত্রে আপনি যত আগে কাটবেন,ভাড়া তত কমে পাবেন। মোটামোটি ২৫ থেকে ৩০ দিন আগে কাটলে মিনিমাম রেঞ্জে বিমানের টিকেট পেয়ে যাবেন।যাত্রার তারিখ যত কাছাকাছি আসবে ততো বিমানের টিকেটের প্রাইজ বাড়তে থাকে।

৫.জনপ্রিয় এয়ারলাইন্স | দুবাই টু বাংলাদেশ ফ্লাইট রেট ও ভাড়া ২০২৩

ঢাকা টু দুবাই সার্ভিস দেওয়া কিছু জনপ্রিয় এয়ারলাইন্স কোম্পানির নাম নিচে দেওয়া হল।
  • হিমালয়া এয়ারলাইন্স
  • ইউএস বাংলা এয়ারলাইন্স
  • কাতার এয়ারওয়েজ
  • বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স
  • এমিরেটস এয়ারলাইন্স

৬. লেখকের মন্তব্য | দুবাই টু বাংলাদেশ ফ্লাইট রেট ও ভাড়া ২০২৩

আজকে আমরা আপনাদের সাথে দুবাই টু বাংলাদেশ ফ্লাইট রেট ও ভাড়া ২০২৩ নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করলাম। আশা করছি দুবাই টু বাংলাদেশ ফ্লাইট রেট ও ভাড়া ২০২৩ সম্পর্কে সকল তথ্য আপনার ভালোভাবে বুঝতে পেরেছেন। দুবাই টু বাংলাদেশ ফ্লাইট রেট ও ভাড়া ২০২৩ সম্পর্কে আপনার যদি কোন প্রশ্ন থাকে সেটি আমাদের জানাবেন। তাহারা এই সম্পর্কে আপনার কি মতামত সেটি ও অবশ্যই আমাদের কমেন্টের মাধ্যমে জানাতে পারেন। দুবাই টু বাংলাদেশ ফ্লাইট রেট ও ভাড়া ২০২৩ ছাড়াও যে কোন বিষয় সম্পর্কে জানতে আমাদের ওয়েবসাইট THE DU SPEECH ভিজিট করবেন।
আর্টিকেলটি লিখেছেন: নুসরাত জাহান হিভা 
পড়াশোনা করছেন: রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় 
লেখকের জেলার নাম: কুমিল্লা



ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় আর্টিকেল রাইটিং সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা
মো. আব্দুল্লাহ আল মামুন
পড়াশোনা করছেন:  ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়। 
জেলা: নাটোর

পরিচিতদেরকে জানাতে শেয়ার করুন

0 Comments

দয়া করে নীতিমালা মেনে মন্তব্য করুন ??

অর্ডিনারি আইটি কী?