The DU Speech https://www.duspeech.com/2022/08/online-income-way.html

অনলাইন থেকে আয় করার উপায় ২০২৩

অনলাইন থেকে আয় করার উপায় ২০২৩।বাংলাদেশে স্মার্টফোন এখন একটি সহজলভ্য বিষয়।যার কাছে স্মার্টফোন রয়েছে তার নেট সংযোগ থাকবে এটাও স্বাভাবিক বিষয়। মানুষ এই ২০২৩ সালে এসে তাদের মূল্যবাণ সময় ব্যয় করছে অনলাইনে। ২০২৩ সালে মানুষ তাদের জীবনের একটা মূল্যবাণ সময় ব্যয় করছে অনলাইনে বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে কিংবা ইউটিউবে ভিডিও দেখে। শুধু সময় নষ্ট নয় সময়কে কাজে লাগানোর মাধ্যমও রয়েছে অনলাইনে।যারা ঘরে বসে আয় করতে চায় তাদের জন্য অনলাইনে রয়েছে নানা উপায় ২০২৩।অনলাইনে ব্লগিং থেকে শুরু করে বিভিন্নভাবে আয় করা যায়। এই আর্টিকেলের মাধ্যমে আমরা অনলাইনে আয় করার উপায় ২০২৩ সম্পর্কে বিস্তারিত জানবো।



অনুচ্ছেদ সূচী ( যে অংশটি পড়তে চান তার উপর ক্লিক করুন)

  1. অনলাইন থেকে ব্লগিং করে আয় করার উপায় ২০২৩।
  2. ফ্রী-ল্যান্সিং করে অনলাইন থেকে আয় করার উপায় ২০২৩।
  3. ইউটিউবিং করে অনলাইন থেকে আয় করার উপায় ২০২
  4. ভিডিও দেখে অনলাইন থেকে আয় করার উপায় ২০২
  5. ওয়েবসাইট বানিয়ে অনলাইন থেকে আয় করার উপায় ২০২
  6. ড্রপশিপিং এর মাধ্যমে অনলাইন থেকে আয় করার উপায় ২০২
  7. অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং করে অনলাইন থেকে আয় করার উপায় ২০২
  8. ফেসবুক ব্যবহার করে অনলাইন থেকে আয় করার উপায় ২০২
  9. অনলাইন থেকে আয় করার উপায় ২০২৩ নিয়ে লেখকের মন্তব্য 



১.অনলাইন থেকে ব্লগিং করে আয় করার উপায় ২০২৩|অনলাইন থেকে আয় করার উপায় ২০২৩

  • ২০২৩ সালে এসে ব্লগিং অনলাইনে আয়ের কার্যকর মাধ্যম হয়ে দাড়িয়েছে। এই পদ্ধতিতে অনলাইনে প্রতি মাসেই টাকা আয় করা সম্ভব।ব্লগ মূলত একটি ডিজিটাল নিউজ পেপারের মতো। আপনি জনপ্রিয় কোনো একটি বিষয় নিয়ে লিখবেন। যার ওই বিষয়টি সম্পর্কে আগ্রহ থাকবে সে এসে পড়ে যাবে।লেখালেখিতে আপনার আগ্রহ থাকলে খুব সহজেই এখান থেকে আয় করতে পারেন।তাই আপনি যে বিষয়ে পারদর্শী সেই নিশেই  কাজ করতে পারেন। নিশ বলতে মূলত লেখালেখির নির্দিষ্ট বিভাগ বোঝায় যেমন, খেলাধুলা, টেকনোলজি, আইন, রান্না, জীবনী, ভ্রমন, ইত্যাদি। 

  • ব্লগে লেখালেখির ক্ষেত্রে সব থেকে ভালো হয় আপনি যদি একটি ব্লগ সাইট নিজে বানিয়ে নিতে পারেন।প্রথমে কিছু টাকা খরচ করে ডোমেন কিনে হোস্টিং ঠিক করে আকর্ষণীয় একটি সাইট তৈরি করুন। এরপর ওখানে লেখা লেখি শুরু করুন। দেখবেন বেশ ভালো ফল পাচ্ছেন।একটি ডট কম ডোমেন কিনবেন সাথে এক জিবি হোস্টিং এবং একটি ফ্রি থিম। এই তিনটা জিনিসই আপনার ব্লগিং শুরু করার জন্য যথেষ্ট। এক্ষেত্রে আনুমানিক তিন হাজার টাকার মতো খরচ হতে পারে।
  • নিজস্ব ওয়েবসাইটে ব্লগিং করলে ব্র্যান্ডিং ভালো হবে এবং ইনকাম এর পরিমানও অনেক বেশি হবে ফ্রী সাইটের তুলনায়। ভবিষ্যতে এসব সাইটের দামও অনেক হবে। ক্ষেত্র বিশেষে একটি ভালো সাইটের মূল্য কয়েক লক্ষ্য পর্যন্ত হয়ে যায়।ব্লগিং মোবাইল এবং কম্পিউটার উভয় মাধ্যমেই করা যায়। তাই যারা মোবাইলে অনলাইন ইনকামের কথা ভাবছেন, তাদের জন্য এটি একটি সেরা সুযোগ।

আরও পড়ুনঃ ফেসবুক থেকে আয় করার সহজ সকল উপায় জানুন


  • তবে এতো কিছুর পাশাপাশি আপনার যদি ডিজিটাল মার্কেটিং এর উপর কিছুটা ধারনা থাকে তাহলে কিন্তু আপনি খুব সহজেই আপনার সেই ব্লগে প্রচুর পরিমাণে ট্রাফিক বা ভিজিটর আনতে পারবেন। যার মাধ্যমে আপনি কিন্তু আপনার ইনকামের পরিমাণ বহুগুণে বাড়িয়ে ফেলতে পারবেন খুব সহজেই।

২.ফ্রিলান্সিং করে অনলাইন থেকে আয় করার উপায় ২০২৩|অনলাইন থেকে আয় করার উপায় ২০২৩

অনলাইনে যে পদ্ধতিতে সবথেকে বেশি আয় করা যায় সেটি হলো ফ্রিলান্সিং।

  • ফ্রিলান্সিং বলতে মুলত অনলাইনে বিভিন্ন ধরনের কাজ যে কাজে আপনি দক্ষ সে কাজটি একটি নির্দিষ্ট পারিশ্রমিক এর বিনিময়ে করে দেয়া।আপনি ঘরে বসেই আপনার কাজ সম্পাদন করতে পারবেন এবং আপনার ক্লায়েন্ট হবে বিভিন্ন দেশের।
  • ফ্রিল্যান্সিং করার জন্য প্রথমে দরকার অনলাইনে একটি নির্দিষ্ট বিষয় দক্ষতা। এটা হতে পারে গ্রাফিক্স ডিজাইনিং, ফটো এডিটিং , ওয়েব ডিজাইনিং, ওয়েব সাইট মেকিং , কপি রাইটিং, কন্টেন্ট রাইটিং, লোগো ডিজাইন ইত্যাদি।
  • এসবের যেকোনো একটি কাজে আপনি দক্ষতা অর্জন করতে পারলেই ফ্রিল্যান্সিং করতে পারবেন। আবার একাধিক কাজে দক্ষতা অনলাইনে অধিক আয়ের সুযোগ সৃষ্টি করে।
আরও পড়ুনঃ ১৫ আগস্ট হামলার স্টেটাস জানুন


  • কাজ শেখার পর বিভিন্ন ফ্রিলান্সিং সাইটে (যেমন- Freelancer, Upwork, Fiver, ইত্যাদি বিভিন্ন ধরনের ফ্রীল্যান্সিং সাইট) তথ্য দিয়ে অ্যাকাউন্ট খুলতে হবে। এরপর আপনি কোন কোন কাজে পারদর্শী সেগুলো ওই সাইটে মেনশন করে দিতে হবে।

  • তবে যেকোনো ওয়েবসাইটে কাজ শুরু করার আগে অবশ্যই ভালো ভাবে সাইটটি দেখে নিবেন। যদি সব কিছু দেখে আপনার কাছে ভালো বলে মনে হয় কেবল তাহলেই আপনি সেই সাইটে কাজ করা শুরু করবেন।আপনি যে কাজ পারেন তার প্রমানের জন্য আপনার পূর্বেই সম্পাদিত কোনো কাজ থাকলে সেটা পোর্টফোলিও আকারে ওই ওয়েবসাইটে সাজিয়ে রাখতে হবে। এতে করে আপনার ক্লায়েন্ট এসে আপনার পোর্টফলিও দেখে পছন্দ করলে আপনাকে কাজে নিয়োজিত করবে।এক্ষেত্রে অবশ্যই ভালো একটা পোর্টফলিও তৈরি করতে হবে।
  • প্রথমে কাজের জন্য আপনার পরিচিত কারো রেফারেন্স নিতে পারেন। রেফারেন্স এর মাধ্যমে কাজ পেয়ে আপনার প্রথম ক্লায়েন্ট যখন আপনাকে ভালো একটা রিভিউ দিবে, তখন কাজ পাওয়া সহজ হবে।


৩. ইউটিউবিং করে অনলাইন থেকে আয় করার উপায় ২০২৩|অনলাইন থেকে আয় করার উপায় ২০২৩

আপনি চাইলেই ইউটিউব ভিডিও বানিয়ে অনলাইনে আয় করতে পারেন।


  • এই ভিডিও বানাতে আপনার ক্যামেরা না থাকলেও চলবে। প্রথমে অনেক বড় বড় ইউটিউবার-ই মোবাইল দিয়ে ভিডিও করে শুরু করে তাদের ইউটিউব যাত্রা। তারপরে সফল হওয়ার পরে এখন তারা দামি মি গেজেট ব্যবহার করে।


  • আপনার কন্টেন্ট যদি ভালো থাকে, প্রয়োজনীয় বিষয় নিয়ে যদি আপনি ভিডিও বানাতে পারেন, তাহলে খুব তাড়াতাড়িই আপনি ভিউয়ার পেয়ে যাবেন।


  • তবে এক্ষেত্রে একটি ছোট্ট বিষয় টিপস দিয়ে রাখি আপনাদের। আপনারা যদি সত্যিই প্রফেশনালভাবে ইউটিউবে কাজ করতে করতে চান তাহলে ভিডিওর অডিও ও ভিডিও এডিটিং খুবই ভালো ভাবে করতে পারবেন।
  • তারপরে সর্বনিম্ন এক হাজার সাবস্ক্রাইবার হয়ে গেলে এবং ন্যূনতম ভিউ টাইম হয়ে গেলে আপনি মানিটাইজেশন এর জন্য আবেদন করতে পারবেন। এর পরে প্রতিটা ভিডিওতে মানিটাইজেশন একটিভেট করে নিলেই আপনার ইনকাম শুরু হয়ে যাবে।

  • এছাড়াও বর্তমানে ইউটিউব কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে ছাড়াও আপনি বিভিন্ন জায়গা থেকে স্পন্সারের মাধ্যমেও ইনকাম করতে পারেন। দেখা গেলো কোনো একটা কোম্পানি কোনো একটা পন্যের মার্কেটিং এর জন্য আপনার ভিডিও তে তার ওই পন্য বিজ্ঞাপন দেয়ার জন্য বললো। আপনি এক্ষেত্রে বিজ্ঞাপন দিতে সম্মতি প্রকাশ করলে আপনাকে আপনার চাহিদা অনুযায়ী সে পেমেন্ট 

 ৪। ভিডিও দেখে অনলাইন থেকে আয় করার উপায় ২০২৩|অনলাইন থেকে আয় করার উপায় ২০২৩

  • ভিডিও দেখে অনলাইন ইনকাম করার বিষয়টি হয়ত অনেকেই জানেন না। সত্যি কথা বলতে অনলাইন থেকে ভিডিও দেখে ইনকাম করার বিষয়টি অনেকের কাছে অবাক লাগলেও ঘটনাটি কিন্তু সত্যি। বর্তমানে এমন কিছু ওয়েবসাইট রয়েছে যেখানে আপনাকে প্রতিদিন ভিডিও দেখার জন্য পেমেন্ট করা হবে।
 


  • তবে মনে রাখবেন, অনলাইনে ভিডিও দেখে ইনকাম করার মতো স্ক্যাম বা ভূয়া সাইট রয়েছে। যারা আপনাকে দিয়ে ভিডিও দেখিয়ে পরবর্তীতে কোনো পেমেন্ট করবে না। এ ধরনের প্রতারণার হাত থেকে বাচঁতে অবশ্যই আপনাকে অনলাইন জগতে সব সময় সর্তক থাকতে হবে। 


  • সাধারনত এই ধরনের ওয়েবসাইটগুলো বিভিন্ন ধরনের চটকদারী বিজ্ঞাপন প্রদর্শনের মাধ্যমে আপনাকে চেষ্টা করবে তাদের ওয়েবসাইটের মাধ্যমে আপনাকে ভিডিও দেখিয়ে আয় করার ফাঁদে ফেলার। একটা বিষয় সব সময়ই মনে রাখবেন। অনলাইনে কখনই কোনো ওয়েবসাইট আপনাকে ভিডিও দেখে খুব বেশি পেমেন্ট করবে না।


  • যখনই দেখবেন কোনো ওয়েবসাইট মাত্রাতিরিক্ত পেমেন্ট করার কথা বলছে কিংবা কোনো চটকদারী বিজ্ঞাপনের কথা বলে আপনাকে তাদের ওয়েবসাইটে আয়ের কথা বলছে; তখনই ওয়েবসাইটটিকে খুব ভালো ভাবে দেখে শুনে যদি সত্যিকার অর্থেই আসল বলে মনে হয় তখন কাজ করা শুরু করবেন; অন্যথায় নয়।

৫। ওয়েবসাইট (Website) বানিয়ে অনলাইন থেকে আয়ের উপায় ২০২৩| অনলাইন থেকে আয় করার উপায় ২০২৩

  • আপনি হয়তো জেনে থাকবেন একটি ভালো ওয়েবসাইটের দাম লাখ টাকা ছাড়িয়ে যায়। আপনিও চাইলে এরকম ওয়েবসাইট বানাতে পারেন এবং সেটি সচল করে অনেক বেশি দামে বিক্রি করে দিতে পারেন। ওয়েবসাইট বানানো বর্তমানে ফেসবুক অ্যাকাউন্ট খোলার মতোই সহজ। যে কেউ চাইলেই করতে পারেন।


  • কিন্তু যে সাইট গুলো খুব সহজে বানানো যায়, সেগুলোর তেমন কোনো চাহিদা থাকে না। তবে আপনার সাইটে যদি পরিমিত পরিমান ট্রাফিক থাকে, সেক্ষেত্রে দাম পেতে পারেন ভালো। যে সাইট গুলো বেশি দামে বিক্রি হয় সেগুলো দক্ষ ওয়েব ডিজাইনার দ্বারা তৈরি করা হয়।


  • তাই আপনি যদি একজন ওয়েব ডিজাইনার হয়ে থাকেন, অথবা ওয়েব ডিজাইনিং শিখতে পারেন সেক্ষেত্রে আপনি নিজে নিজে ভালো ওয়েবসাইট বানিয়ে সেখানে পর্যাপ্ত কন্টেন্ট আপলোড করে সেখান সাইটটি সচল করে সেটিকে ভালো দামে বিক্রি করতে পারেন।


  • আপনি চাইলে ইউটিউব থেকে ফ্রিতে ভিডিও দেখে বা ভালো কোনো প্রতিষ্ঠান থেকে ওয়েব ডিজাইন কোর্স করেও শিখতে পারেন ওয়েব ডিজাইনিং।


  • আবার অনেক ক্ষেত্রে নতুন সাইটও বিক্রি করতে পারেন যদি আপনার হাতে ক্লায়েন্ট থাকে। আর এই কাজের একটি ভালো দিক হলো আপনি যদি এই কাজে একবার দক্ষ হয়ে উঠতে পারেন, তবে বিভিন্ন জায়গা থেকে কাজের সুযোগ আসবে আবার চাকরি জীবনেও এই অভিজ্ঞতা অনেক কাজে আসবে আপনার।


৬.ড্রপশিপিং এর মাধ্যমে অনলাইন থেকে আয় করার উপায় ২০২৩|অনলাইন থেকে আয় করার উপায় ২০২৩

  • ড্রপশিপিং (Dropshipping) অনলাইন ব্যবসার অন্তর্গত একটি কাজ যার মাধ্যমে খুব সহজেই অনেক টাকা ইনকাম করা সম্ভব। চলুন প্রথমেই জেনে নেই ড্রপশিপিং (Dropshipping) আসলে কি। এটা উদাহরন দিয়ে বুঝালে আপনি খুব সহজেই বুঝে যাবেন।


  • মনে করেন, আপনার এলাকায় পরিচিত একজন কোনো একটা পন্য তৈরি করে সেটা বাজারে ৫০০ টাকায় বিক্রি করে। আপনি খোঁজ নিয়ে দেখলেন যে এই পন্যটিই শহরে বড় বড় মার্কেটে অথবা কোনো ই-কমার্স সাইটে ১৫০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।


  • এরকম কিন্তু সচরাচর আমাদের দেশে সবসময় হয়েই চলেছে। কোনো একটা সবজি কৃষকদের থেকে ৫ টাকা কেজি মূলে কিনে বড় বড় বাজারে ওইগুলো ৫০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে।


  • তো এক্ষেত্রে আপনি নিজেই বড় একটি ই-কমার্স (E-Commerce) সাইটে প্রোফাইল খুলে ওই পন্যটি বিক্রি করতে পারেন। আপনি আপনার এলাকার যে উৎপাদনকারী আছে তার কাছে থেকে পন্য টা ৫০০ টাকায় কিনে সেটি আপনার প্রোফাইলে ১৪০০ টাকায় বিক্রি করতে পারবেন।


  • এতে একটি পন্যেই ৯০০ টাকা লাভ করতে পারছেন। অথবা আপনি যদি ১২০০ টাকায় বিক্রি করেন তাতেও আপনার ৭০০ টাকা লাভ থেকে যাচ্ছে। এটিই মুলত ড্রপশিপিং (Dropshipping)। আপনার এলাকায় যদি এরকম কোনো সুযোগ থেকে থাকে আপনার অবশ্যই উচিৎ সুযোগটি কাজে লাগানো।

৭.অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং করে অনলাইন থেকে আয় করার উপায় ২০২৩| অনলাইন থেকে আয় করার উপায় ২০২৩

অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং বর্তমানে সারা বিশ্বে অনলাইনে আয় করার সবচেয়ে জনপ্রিয় মাধ্যম।

  • বিশ্বজুড়ে হাজার হাজার ই-কমার্স সাইট রয়েছে। এদের ভেতরে অনেকগুলো আবার সারা বিশ্বেই পন্য ডেলিভারি দিয়ে থাকে। এইসব ই-কমার্স সাইটে প্রত্যেকটাতে অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং নামে একটি সেকশন রয়েছে।
  • আপনি সেখানে অ্যাকাউন্ট খুলে খুব সহজেই অনলাইন থেকে আয় করতে পারবেন ২০২৩

৮।ফেসবুক ব্যবহার করে অনলাইন থেকে আয় করার উপায় ২০২৩|অনলাইন থেকে আয় করার উপায় ২০২৩

২০২৩ সালে এসে ফেসবুক এদেশের মানুষের কাছে সবচেয়ে জনপ্রিয় সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে। এর মাধ্যমে খুব সহজেই অনলাইন থেকে আয় করা যায়। ফেসবুক ব্যবহার করে অনলাইন থেকে আয় করার বিভিন্ন সহজ উপায় রয়েছে। কনটেস্টে অংশ নিয়ে, ফ্রীল্যান্সিং করে, ফেসবুক পেজ তৈরি করে, ফেসবুক পেজ বুস্ট করে, ফেসবুক গ্রুপ বিক্রি করে, ফেসবুক গ্রুপে বিভিন্ন পন্য বিক্রি করে অনলাইন থেকে আয় করা যায়। ২০২৩ সালে অনলাইনে আয়ের একটি প্রধান মাধ্যম হতে পারে ফেসবুক।


  •  ২০২৩ সালে ফেসবুকে লিংক শেয়ার করিয়ে সহজ উপায়ে অনলাইন থেকে টাকা আয়ের সুযোগ করে দিয়েছে OrdinaryIt।  এটি একটি বাংলাদেশি আইটি কোম্পানী। এখানকার আর্টিকেলগুলো প্রতিদিন ফেসবুক আইডি দিয়ে শেয়ার করলে তারা মাস শেষে সাধারণত ৬ শত থেকে ১ হাজার টাকা করে দেয়। এর মাধ্যমে খুব সহজ উপায়েই অনলাইনে ভালো একটা টাকা আপনারা ফেসবুক থেকে আয় করতে পারেন।


  • বাংলাদেশী সাইট হওয়ায় OrdinaryIT থেকে অনলাইনে পেমেন্ট পাওয়া খুবই সহজ। বিকাশ বা রকেট দিয়েই মাস শেষে পেমেন্ট নেয়া যায়। ফেসবুক ব্যবহার করে অনলাইন  থেকে সহজে আয় করার উপায় ২০২৩ এর মধ্যে এটি অন্যতম।


  • অনলাইন ব্যবহার করে ফেসবুক থেকে টাকা আয় করার জন্য প্রথমে আপনার ফেসবুক পেজের লাইক বাড়িয়ে নিতে হবে। ফেসবুক থেকে সহজ উপায়ে আয় ২০২৩ শুরু করার পূর্বে ফেসবুক পেজের লাইক বৃদ্ধি করে নেওয়া হবে আপনার প্রধান কাজ। ফেসবুকে যেকোন কাজের মাধ্যমে যখন আপনি ফেসবুক পেজের লাইক বাড়িয়ে নিবেন, তখন ফেসবুক থেকে আয়ের পথ আপনার জন্য অনেক সহজ হবে।



  • ইউটিউবের মতো ফেসবুকে ভিডিও আপলোড করে ভিডিওতে বিজ্ঞাপন শো করানোর মাধ্যমে ফেসবুক থেকে সহজে উপায়ে টাকা আয় করা সম্ভব । Facebook এ সহজ উপায়ে আয় করার এই নতুন পদ্ধতিকে বলা হয় “Facebook Video Monetization বা In-Stream Ads. 


  • ফেসুবক In-Stream Ads হলো এমন একটি সার্ভিস যেটি দিয়ে ফেসবুক পেজে আপলোড করা ভিডিওতে বিজ্ঞাপন বা ads শো করানো যায়। এই বিজ্ঞাপন গুলো যখন লোকজন দেখবে বা ক্লিক করবে তখন আপনি অনলাইন থেকে সহজ উপায়ে টাকা আয় করতে পারবেন ২০২৩। তবে ফেসুবক In-Stream Ads এর বিজ্ঞাপন ফেসবুক পেজ ব্যতীত অন্য কোথায় ব্যবহার করা যায় না। ফেসবুক পেজে এসব বিজ্ঞাপন শো করিয়ে অনলাইন থেকে খুব সহজ উপায়েই আয় করতে পারেন ২০২৩।


  • অনলাইনের ফেসবুকে বিভিন্ন প্রাতিষ্ঠানিক গ্রুপ রয়েছে যাদের সদস্য সংখ্যা বৃদ্ধির জন্য নিয়মিত বিভিন্নরকম প্রতিযোগিতার আয়োজন করে থাকে। বুক রিভিউ, সুন্দর হাতের লেখা, বিতর্ক, ক্যালিগ্রাফি, অনলাইন বেসড এমসিকিউ ভিত্তিক পরীক্ষা নির্দিষ্ট কোন বইয়ের উপরও হয়ে থাকে। বেশিরভাগ সময়ই এসব প্রতিযোগিতার মূল পুরস্কার থাকে টাকা। এই টাকার পরিমান হাজার থেকে লাখ পর্যন্ত হয়ে থাকে । এসব প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করে জিতলে অনেক সময় খুব ভালো টাকা অনলাইন থেকে  খুব সহজ উপায়ে আয় করা যায়।


  • ফেসবুকে বিভিন্ন গ্রুপ রয়েছে পণ্য বিক্রি করে সহজ উপায়ে আয় করার জন্য ২০২৩। এখন ফেসবুক একটা মার্কেট প্লেসের মতোই কাজ করছে। যেকোনো ব্যক্তির নুতন বা পুরাতন সামগ্রী ফেসবুকে সহজ উপায়ে বিক্রি করার জন্য আলাদা আলাদা গ্রুপ রয়েছে। যে কেউ চাইলে নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিস থেকে শুরু করে পোশাক, জুতো, ব্যবসায়িক সামগ্রী, ইলেক্ট্রনিক সামগ্রী অনলাইন থেকে সহজ উপায়ে ক্রয় ও বিক্রয় করে আয় করতে পারে। এর জন্য বিক্রেতাকে পণ্যটি সম্পর্কে ভালো করে মার্কেটিং করতে হয়। পাবলিক যে বিষয়গুলো পছন্দ করে সেটা নিয়ে কথা বলতে হয়। মাঝে মাঝে ফেসবুক লাইভে এসেও অনেকে তাদের পণ্য সহজ উপায়ে বিক্রি করে আয় করছে। পণ্য বিক্রি করে সহজ উপায়ে ফেসবুক থেকে আয় ২০২৩ করার এটা সবচেয়ে কার্যকরী মাধ্যম।
আরও পড়ুনঃ ১৫ আগস্ট হামলার স্টেটাস জানুন


  • আবার ফেসবুক পেজ বুস্ট করেও অনেকে সহজ উপায়ে আয় করছে। ফেসবুক পেজ সংক্রান্ত বিষয়ে দক্ষ হলে এখান থেকে টাকা আয় করা আপনার জন্য খুবই সহজলভ্য বিষয় হবে। ফেসবুক পেজ তৈরি করার বিভিন্ন ভিডিও ইউটিউবে পাওয়া যায় সেখান থেকেও খুব সহজ উপায়ে শেখা যায় পেজ তৈরি করা।


  • অনলাইনে ফেসবুক মার্কেটিং ম্যানেজার হিসেবে কাজ করার জন্য প্রচুর জব অফার রয়েছে ২০২৩ সালে। আপনি যদি ফেসবুক মার্কেটিং ভালোভাবে শিখতে পারেন তাহলে ফ্রিল্যান্সিং করে অনলাইন থেকে প্রচুর টাকা আয় করার সুযোগ আছে। অনলাইনে এজন্য ফেসবুকে অ্যাড কিভাবে রান করতে হয় তা শিখতে হবে। আপনাকে অনলাইন থেকে যে কেউ ফেসবুক পেজ ম্যানেজমেন্ট করার জন্য হায়ার করতে পারে যদি আপনার সে বিষয়ে দক্ষতা থাকে। তাই অনলাইনে ফেসবুক পেজ কিভাবে চালাতে হয় তা শিখে ফেলুন। আর এই কাজগুলো আপনি মোবাইল দিয়েই করতে পারেন। ছাত্রদের জন্য অনলাইনে আয় এবং মোবাইল দিয়ে টাকা ইনকামের জন্য ফেসবুক সবচেয়ে ভালো মাধ্যম।


৯।অনলাইন থেকে আয় করার উপায় ২০২৩ নিয়ে লেখকের মন্তব্য|অনলাইন থেকে আয় করার উপায় ২০২৩


অনলাইন থেকে বিভিন্ন উপায়ে আয় করা যায়। স্মার্টফোনে নেট সংযোগ থাকলে উপর্যুক্ত নিয়মগুলো অবলম্বন করে খুব সহজেই টাকা আয় করতে পারবেন। শুধু পরিশ্রম এবং সততা থাকলেই অনলাইনে আয় করা যায়৷ তাই ঘরে বসে না থেকে অনলাইনে আয় করুন সহজেই। অনলাইন থেকে আয় করার উপায় ২০২৩


পরিচিতদেরকে জানাতে শেয়ার করুন

0 Comments

দয়া করে নীতিমালা মেনে মন্তব্য করুন ??

অর্ডিনারি আইটি কী?