The DU Speech https://www.duspeech.com/2021/10/aachol-foundation.html

আঁচল ফাউন্ডেশন | Aachol Foundation

আঁচল ফাউন্ডেশন কী? আঁচল ফাউন্ডেশন এর প্রতিষ্ঠাতা কে? আঁচল ফাউন্ডেশন এর বিভিন্ন ব্রাঞ্চ, আঁচল ফাউন্ডেশন এর  কর্মশালা, জরিপসহ Aachol Foundation এর বিস্তারিত তথ্য থাকছে এই আর্টিকেলে।  আঁচল ফাউন্ডেশন একটি অলাভজনক সংস্থা। Aachol Foundation শিক্ষার্থীদের মানসিক স্বাস্থ্য সচেতনতামূলক কর্মকাণ্ড পরিচালনা করে থাকে। মায়ের আঁচল যেমন তার সন্তানদের আগলে রাখে ঠিক তেমনই আঁচল ফাউন্ডেশন শিক্ষার্থীদের মানসিক স্বাস্থ্য সম্পর্কে সব সময় সুপরামর্শ ও দিক নির্দেশনা দিয়ে আসছে।  করোনা ভাইরাসের সংক্রমণের পর থেকেই দীর্ঘদিন প্রায় সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় লেখাপড়া, ভবিষ্যৎ ক্যারিয়ার নিয়ে হতাশায় ভোগে দেশের অধিকাংশ শিক্ষার্থী।  এমতাবস্থায় Aachol Foundation  তার মহৎ উদ্দেশ্য নিয়ে এগিয়ে আসে।


এই পোস্টে যে সকল তথ্য জানবেন

  • আঁচল ফাউন্ডেশন কী? এর উদ্দেশ্য কী?
  • আঁচল ফাউন্ডেশন এর প্রতিষ্ঠাতা কে?
  • আঁচল ফাউন্ডেশনে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণ 
  • আঁচল ফাউন্ডেশন এর বিভিন্ন কর্মশালা
  • আঁচল ফাউন্ডেশন এর বিভিন্ন সার্ভে বা জরিপ 
  • আঁচল ফাউন্ডেশন এর আত্নহত্যার জরীপ 
  • মানসিক সমস্যা নিয়ে আঁচল ফাউন্ডেশন এর জরিপ।
  • আঁচল ফাউন্ডেশনের সাথে যোগাযোগ ঠিকানা


আঁচল ফাউন্ডেশন এর প্রতিষ্টাতা

Aachol Foundation  ২০১৯ সালে প্রতিষ্ঠা লাভ করে  তানসেন রোজের হাত ধরে।  প্রতিষ্ঠাতা তানসেন রোজ এই সকল শিক্ষার্থীদের মানসিক স্বাস্থ্য সচেতনতা তৈরির পাশাপাশি তাদের হতাশা ও দূর্বলতা সনাক্ত করে কাউন্সেলর টিমের মাধ্যমে কাউন্সেলিং প্রদান করে থাকে।

আঁচল ফাউন্ডেশন এর উদ্যোগে এই সকল হতাশাগ্রস্ত শিক্ষার্থীদের কাউন্সেলিং এর পাশাপাশি বিভিন্ন কর্মশালার মাধ্যমে দৈনন্দিন জীবনে অংশগ্রহণমূখী করে তোলার পাশাপাশি শিক্ষার্থীদের ভবিষ্যৎ জীবনের জন্য দক্ষ করে গড়ে তুলতে সাহায্য করে।

আঁচল ফাউন্ডেশন এ পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণ 

আঁচল ফাউন্ডেশনে বর্তমানে বিভিন্ন পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা অংশগ্রহণ করছে সুন্দর ও সুস্থ মানসিক স্বাস্থের প্রজন্ম গড়ে তুলতে। Aachol Foundation এর এক জরিপে দেখা যায় দেশের পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিকাংশ শিক্ষার্থীরা মানসিকভাবে হতাশাগ্রস্ত।  বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের আত্মহত্যার পরিসংখ্যানেও বড় ধরনের  পরিবর্তন দেখা যাচ্ছে।

 

এই সকল শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণ করার উদ্দেশ্য হলো নিজেদের মানসিক স্বাস্থ্যের উন্নতির পাশাপাশি সহপাঠীদের মানসিক স্বাস্থ্যের উন্নতিতে সহায়তা প্রদান করা। এই সকল পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা বিভিন্ন কর্মশালার মাধ্যমে আঁচল ফাউন্ডেশন এর কার্যক্রমে গতি বাড়িয়ে তুলে।

আঁচল ফাউন্ডেশন এর বিভিন্ন কর্মশালা

আঁচল ফাউন্ডেশন এর সার্ফএইড প্রোজেক্ট 

সার্ফ এইড প্রোজেক্টের মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের মানসিক স্বাস্থ্যসেবা দিয়ে থাকে আঁচল ফাউন্ডেশন।  সার্ফএইড প্রোজেক্ট এর  আওতায় শিক্ষার্থীদের মানসিক হতাশা দূরীকরণ এর চেষ্টা করে Aachol Foundation ।  অনেক শিক্ষার্থীই মানসিকভাবে হতাশায় ভোগে বিভিন্ন কারণে।  তারা আঁচল ফাউন্ডেশন এর কাউন্সেল ইউনিট এ যোগাযোগ করে তাদের হতাশার কারণ জানালে সাহায্য করবে Aachol Foundation. 

 

 আঁচল ফাউন্ডেশন এর আওয়াজ প্রোজেক্ট 

এই প্রোজেক্ট এর আওতায় শিক্ষার্থীদের সাইবার ক্রাইম রিলেটেড সমস্যায় সহায়তা প্রদান করে থাকে আঁচল ফাউন্ডেশন।  এমন অনেক শিক্ষার্থী রয়েছে যাদের সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে বা ইন্টারনেটে হেয় প্রতিপন্ন করা হয়। ইনবক্সে আপত্তিকর ছবি বা কথা বলে বিরক্তি করে। এমন অনেকেই আছেন তারা বিভিন্নভাবে অনলাইনে হুমকি প্রদান করে। এ সকল সমস্যা সমাধানের জন্য Aachol Foundation এই প্রোজেক্ট বাস্তবায়ন করে যাচ্ছে।

আঁচল ফাউন্ডেশন এর প্রোজেক্ট সার্ভে

বিভিন্ন তথ্য উপাত্ত সংগ্রহ করে শিক্ষার্থীদের মানসিক অবস্থা মূল্যায়নের জন্য। ফলে প্রয়োজন হয় সার্ভে করার। প্রোজেক্ট সার্ভেতে আঁচল ফাউন্ডেশন বৃহৎ অংশের শিক্ষার্থীদের উপর জরিপ চালায় এবং ফলাফল প্রদান  করে থাকে। পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন শিক্ষার্থী এই জরিপ প্রজেক্টে সহায়তা প্রদান করে থাকে।

আঁচল ফাউন্ডেশন এর আত্মহত্যার জরীপ

আঁচল ফাউন্ডেশন শিক্ষার্থীদের আত্মহত্যা নিয়ে একটি জরিপ চালায়। সেখানে উঠে এসেছে দেশের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের আত্মহত্যার জরীপ। এবং দেশের সাধারণ শিক্ষার্থীদের আত্মহত্যার তথ্য। করোনাকালীন সময়ে শিক্ষার্থীদের আত্মহত্যার প্রবনতা অনেক বেশি ছিল। আঁঁচল ফাউন্ডেশন এর তথ্যানুযায়ী দেশে করোনাকালীন ১৫ মাসে ৪২ জন বিশ্ববিদ্যালয় ও মেডিক্যাল কলেজের শিক্ষার্থী আত্মহত্যা করেছে।

Aachol Foundation এর হিসাবে সারাদেশে ৪ জুন পর্যন্ত প্রায় ১৫১ জন শিক্ষার্থী আত্মহননের পথ বেছে নিতে বাধ্য হয়েছেন। আঁচল ফাউন্ডেশন এর দেয়া প্রতিবেদনে স্কুল পর্যায়ে আত্মহত্যা করা শিক্ষার্থীর সংখ্যা সবচেয়ে বেশি ছিল এবং সবচেয়ে কম আত্নহত্যার চিত্র দেখা যায় কলেজের শিক্ষার্থীদের মধ্যে।

আঁচল ফাউন্ডেশন এর জরিপ অনুযায়ী আত্মহত্যা করা শিক্ষার্থীদের মধ্যে স্কুলের শিক্ষার্থীদের সংখ্যা ছিল ৭৩ জন। মাদরাসার আত্নহত্যা করা শিক্ষার্থীদের সংখ্যা ২৯ জন। এবং কলেজের আত্মহত্যা করা শিক্ষার্থীদের সংখ্যা ছিল ২৭ জন।

মানসিক সমস্যা নিয়ে আঁচল ফাউন্ডেশন এর জরীপ 

মানসিক স্বাস্থ্য নিয়ে আঁচল ফাউন্ডেশন একটি জরীপ চালায়। জরিপে দেখা যায় 84 শতাংশ শিক্ষার্থী মানসিক সমস্যায় ভুগছে। উক্ত জরীপে দেশের ৯২ টি সরকারি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় ও কলেজের শিক্ষার্থীরা অংশগ্রহণ করেছেন। জরিপে 2552 জন শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করেছেন। এ সকল শিক্ষার্থীদের মধ্যে রয়েছে দেশ সেরা শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, বুয়েট ও মেডিকেলসহ দেশের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়। জরিপে অংশগ্রহণকারী শিক্ষার্থীদের মধ্যে 61 শতাংশ শিক্ষার্থী ছিল নারী। 

আচল ফাউন্ডেশনের জরিপ বলছে শিক্ষার্থীর মানসিক সমস্যার কারণ হিসেবে উল্লেখ করেছে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে আসক্তি, ক্যারিয়ার নিয়ে চিন্তা, অধিক সময় ডিজিটাল স্ক্রিনের সামনে বসে থাকা, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকা পারিবারিক সমস্যা।

মানসিক সমস্যা শহরের তুলনায় রাবির শিক্ষার্থীদের বেশি আক্রান্ত করেছে। গ্রামের শিক্ষার্থীদের মধ্যে প্রায় 86 দশমিক 2 শতাংশ শিক্ষার্থী মানসিক সমস্যায় ভুগছেন। মানসিক সমস্যায় পড়ি শিক্ষার্থীদের তুলনায় নারী শিক্ষার্থীরা বেশি আক্রান্ত হয়েছেন। 

7 শতাংশ এরো বেশি  নারী শিক্ষার্থীর মানসিক সমস্যায় ভুগছেন। Aachol Foundation এ কারণ হিসেবে বলা হয়েছে, দীর্ঘদিন ধরে শিক্ষার্থীরা ঘর বন্দী অবস্থায় ছিল পাশাপাশি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো বন্ধ ছিল। অধিকাংশ নারী শিক্ষার্থীরা বিয়ের চাপে পড়েছে।অঞ্চল ভেদে সিলেটের শিক্ষার্থীরাই বেশি মানসিকভাবে বিপর্যস্ত হয়ে গেছেন।


আঁচল ফাউন্ডেশনের সাথে যোগাযোগ করুন

আঁচল ফাউন্ডেশনের যোগাযোগ নম্বর ঃ  01617-586387

 

 


Read in English 

What is Aachol Foundation?  Who is the founder of Aachol Foundation?  This article contains detailed information of Aachol Foundation including various branches of Aachol Foundation, workshops of Aachol Foundation, survey.  The Aachol Foundation is a non-profit organization.  The Aachol Foundation conducts mental health awareness activities for students.  Just as the mother area protects her children, the area foundation always provides advice and guidance on the mental health of the students.  Most of the students in the country are frustrated with their education and future careers as almost all educational institutions have been closed for a long time since the corona virus infection.  In this context, the Aachol Foundation comes forward with its noble cause.

 You will know all the information in this post

 What is Aanchal Foundation?  What is the purpose of this?

 Who is the founder of Aanchal Foundation?

 Participation of public university students in the Aanchal Foundation

 Various workshops of Aanchal Foundation

 Various surveys of the Aanchal Foundation

 Area Foundation's Suicide Survey

 Anchal Foundation's survey on mental health problems.

 Founder of Aanchal Foundation

 The Aachol Foundation was founded in 2019 by Tansen Rose.  Founder Tansen Rose provides counseling to these students through a counseling team, creating mental health awareness as well as identifying their frustrations and weaknesses.

 At the initiative of the Aanchal Foundation, counseling of these depressed students as well as various workshops to help them participate in daily life and help them to become proficient in their future lives.

 Participation of students of public universities in Aanchal Foundation

 At present, students of various public universities are participating in the Aanchal Foundation to build a generation of beautiful and healthy mental health.  A survey by the Aachol Foundation found that most students at public universities in the country are mentally depressed.  There is also a big change in the student suicide in different statistics. 

 The purpose of all these students' participation is to improve their own mental health as well as to help their classmates improve their mental health.  The students of all these public universities accelerated the activities of the Aanchal Foundation through various workshops.

 Various workshops of Aanchal Foundation

 Aanchal Foundation's SurfAid Project

 The Aanchal Foundation provides mental health care to students through the Surf Aid project.  The Aachol Foundation seeks to alleviate students' emotional frustration under the SurfAid project.  Many students suffer from mental depression for various reasons.  They can contact the Aachol Foundation's counsel unit at the Aachol Foundation to help them express their frustration.

 Aanchal Foundation's Awaaz Project

 Under this project, the Aanchal Foundation provides assistance to students in cyber crime related issues.  There are many students who are humiliated through social media or on the internet.  Annoyingly Libran - always rational, easily hurt emotionally, very passionate and maybe a little too intense.  There are many people who make threats online in various ways.  Aachol Foundation is implementing this project to solve all these problems.

 Area Foundation's Project Survey

 To assess the mental state of the students by collecting various data.  As a result, it is necessary to conduct a survey.  In the Project Survey, the Area Foundation conducts surveys on a large number of students and provides results.  Various students from public universities provide assistance in this survey project.

 Read more: What is mood swing?  Why?

 Area Foundation's Suicide Survey

 The Aanchal Foundation conducted a survey on student suicide.  There has been a survey of suicides of students of different universities of the country.  And suicide data of ordinary students in the country.  During the Corona period, the tendency of students to commit suicide was much higher.  According to the Anchal Foundation, 42 university and medical college students have committed suicide in the last 15 months in the country.

 As of June 4, about 151 students across the country have been forced to commit suicide, according to the Aachol Foundation.  The Anchal Foundation reports that the number of students committing suicide at school level was the highest and the lowest suicide rate among college students.

 Read more: Rhythm of Bengali Poetry

 According to the Anchal Foundation's survey, the number of students who committed suicide was 63.  The number of students who committed suicide in the madrasa is 29.  And the number of college students who committed suicide was 26.

 Anchal Foundation's survey on mental health problems

 The Aanchal Foundation conducted a survey on mental health.  The survey found that 84 percent of students suffer from mental health problems.  Students of 92 government and private universities and colleges of the country have participated in the survey.  2552 students participated in the survey.  Among these students are Dhaka University, BUET and Medical and other universities of the country.  Sixty-one percent of the students who participated in the survey were women.

 The Achal Foundation's survey cited addiction through social media, career worries, sitting in front of digital screens for long periods of time, and family problems as educational institutions are closed as the reasons for students' mental health problems.

 Mental problems have affected RU students more than the city.  About 86.2% of the students in the village are suffering from mental health problems.  Women students are more affected than students due to mental problems.

 More than 7 percent of female students suffer from mental health problems.  According to the Aachol Foundation, students have been under house arrest for a long time and educational institutions have been closed.  Most of the female students are under the pressure of marriage.

পরিচিতদেরকে জানাতে শেয়ার করুন

0 Comments

দয়া করে নীতিমালা মেনে মন্তব্য করুন ??

অর্ডিনারি আইটি কী?