The DU Speech https://www.duspeech.com/2021/12/uhc%20day%20in%20du.html

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে সার্বজনীন স্বাস্থ্য সুরক্ষা দিবস পালিত

১২ ডিসেম্বর, ২০২১সার্বজনীন স্বাস্থ্য সুরক্ষা দিবস। যথাযথ মর্যাদা ও উংসবমুখর পরিবেশে আজ স্বাস্থ্য অর্থনীতি ইনস্টিটিউট ও ইনস্টিটিউট এর শিক্ষার্থীদের দ্বারা পরিচালিত skill development ক্লাব Health Economics Study Alliance (HESA) এর যৌথ উদ্যোগে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কলাভবনে পালিত হয় দিনটি। পৃথিবীর সকল মানুষের জন্য স্বাস্থ্য সেবা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে পৃথিবীর বিভিন্ন  দেশে পালিত হয় দিনটি। এরই অংশ হিসেবে দিনভর নানা কর্মসূচীর আয়োজন করে সংগঠনটি। উল্লেখ্য যে, সার্বজনীন স্বাস্থ্য সুরক্ষা দিবস এর এবারের প্রতিপাদ্য ছিল "LEAVE NO ONE'S HEALTH BEHIND : Invest In Health Systems For All". 




অনুষ্ঠান সূচী :

১. কুইজ প্রতিযোগিতা
২. পোস্টার তৈরি প্রতিযোগিতা
৩. Universal Health Coverage (UHC) শীর্ষক সম্মিলিত র‍্যালী
৪. সার্বজনীন স্বাস্থ্য সুরক্ষা বিষয়ক আলোচনা সভা
৫. পুরস্কার বিতরণী ও সমাপনী অনুষ্ঠান


কুইজ প্রতিযোগিতা :

আজ Universal Health Coverage Day (UHC) পালনের লক্ষ্যে ইনস্টিটিউট এর নিজস্ব সংগঠন Health Economics Study Alliance (HESA) এর পক্ষ থেকে স্বাস্থ্য অর্থনীতি এর সকল শিক্ষার্থীদের নিয়ে একটি অন্তঃ ইনস্টিটিউট কুইজ প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়। মূলত কুইজ প্রতিযোগিতাটি দুটি অংশে বিভক্ত ছিলো। ১ম অংশ অর্থাৎ প্রাথমিক পর্যায়টি অনুষ্ঠিত হয় গত ০৯ ডিসেম্বর। সেখান থেকে চার জন মেধাবী প্রতিযোগীকে বেছে নেয়া হয় গ্রান্ড ফিনালের জন্য। তুমুল প্রতিদ্বন্দিতার মধ্য থেকে ইনস্টিটিউট এর অষ্টম ও দশম ব্যাচের দুজন করে শিক্ষার্থী শেষ পর্যায়ে প্রতিদ্বন্দিতা করার সুযোগ পান।

আজ সকাল ৯.৩০ ঘটিকায় ফাইনাল রাউন্ডের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন ইনস্টিটিউটের সম্মানিত শিক্ষিকা ড. শারমিন মবিন ভূঁইয়া। এসময় অন্যান্য সম্মানিত শিক্ষকমন্ডলীও উপস্থিত ছিলেন।

সকাল ১০ ঘটিকায় শুরু হওয়া ফাইনাল রাউন্ড তুমুল প্রতিদ্বন্দিতাপূর্ণ হয়। সকল জল্পনা কল্পনার অবসান ঘটিয়ে অষ্টম ব্যাচের মো. আশরাফুল ইসলাম নিজের মেধার স্বাক্ষর রেখে বিজয়ীর মুকুট ছিনিয়ে নেন। খুব অল্প নম্বরের ব্যবধানে ২য় ও ৩য় স্থান অধিকার করেন যথাক্রমে দশম ব্যাচের শিক্ষার্থী সিরাজুম মুনিরা রাইয়ান এবং অষ্টম ব্যাচের শিক্ষার্থী হাবিবা হিয়া।



Universal Health Coverage Day শীর্ষক র‍্যালী :

এ দিনটিকে আরও মাধুর্যমন্ডিত করতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কলাভবন সংলগ্ন 'অপরাজেয় বাংলা' থেকে স্বাস্থ্যবিষয়ে সচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে আজ বেলা ১১ ঘটিকায় একটি স্মারক র‍্যালী বের করা হয়। উক্ত র‍্যালীর নেতৃত্ব দেন স্বাস্থ্য অর্থনীতি ইনস্টিটিউট এর সম্মানিত ডিরেক্টর ড. নাসরিন সুলতানা। এছাড়াও ইনস্টিটিউট এর অন্যান্য শিক্ষকগণ এতে অংশগ্রহণ করেন। ছাত্র-শিক্ষক মেলবন্ধনের এই র‍্যালীটি অপরাজেয় বাংলা থেকে শুরু হয়ে একে একে Teacher Student Centre (TSC), কেন্দ্রীয় শহিদ মিনার, ফুলার রোড অতিক্রম করে কলাভবনে এসে শেষ হয়। এসময় দিনটি উপলক্ষে সকলের মধ্যে এর উৎসবমুখর পরিবেশের সৃষ্টি হয়। পরে সকলের জন্য মধ্যাহ্ন ভোজের ব্যবস্থা করা হয়।


পোস্টার তৈরী প্রতিযোগিতা:
Universal Health Coverage Day (UHC) এর বিভিন্ন পদক্ষেপ নানাবিধ তথ্যবহুল পোস্টার এর মাধ্যমে প্রদর্শন করে স্বাস্থ্য অর্থনীতির বিভিন্ন বর্ষের শিক্ষার্থীরা। সেসব পোস্টার প্রদর্শনী থেকে সম্মানিত শিক্ষকদের দ্বারা গঠিত প্যনেল প্রতিযোগিতার নিয়মানুযায়ী যথাযথ বিচার বিশ্লেষণ করেন। তাঁদের দেয়া ফলাফল অনুযায়ী পোস্টার প্রতিযোগিতার ৩ জন বিজয়ীকে নির্বাচন করা হয়। পোস্টার প্রতিযোগিতায় ছিল দশম ব্যাচের জয়জয়কার। ৩ টি স্থানেকেই নিজেদের মেধা দিয়ে অর্জন করে নেয় নব্য ২য় বর্ষ অর্থাৎ দশম ব্যাচের শিক্ষার্থীরা। যোগ্যতম হিসেবে ১ম পুরস্কার বিজয়ী জুবায়ের আহমেদ। তার তৈরি পোস্টার সকল বিচারকদের মুগ্ধ করে। ২য় স্থান অধিকার করেন সুহরাত জাহান ভুঁইয়া এবং ৩য় হওয়ার গৌরব অর্জন করেন সাবরিনা ইসলাম। এতে করে ইনস্টিটিউট এ নিজেদের ব্যাচকে অনেক ওপরে স্থান করে দিলেন তারা।


Universal Health Coverage (UHC) শীর্ষক আলোচনা সভা :
বিকাল ৩ ঘটিকায় ইনস্টিটিউট এর শ্রেনিকক্ষে সার্বজনীন স্বাস্থ্য সুরক্ষা বিষয়ক আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়। উক্ত আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন ইনস্টিটিউট এর সম্মানিত ডিরেক্টর ড. নাসরিন সুলতানা। বিশেষ অতিথি হিসেবে ছিলেন ইনস্টিটিউট এর অন্যতম অভিজ্ঞ শিক্ষক ড. আবদুল হামিদ। এছাড়া অন্যান্য শিক্ষকবৃন্দও এসময় উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠান পরিচালনার দায়িত্বে ছিলেন অপর তরুণ শিক্ষিকা আফরিদা তাসনিম।
অনুষ্ঠানে স্বাস্থ্য সুরক্ষা লাভের ক্ষেত্রে নানাবিধ বাধা ও তা থেকে উত্তরণের পথ নিয়ে আলোচনা করা হয়। সূচনা বক্তব্য রাখেন অভিজ্ঞ শিক্ষিকা ড. শারমিন মবিন ভুঁইয়া। শিক্ষার্থীদের পক্ষ থেকে তথ্যবহুল বক্তব্য পেশ করেন চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী সিফাত জুবায়ের ও রাইসা জামিল।
বিশেষ অতিথি হিসেবে বিশ্লেষণধর্মী বক্তব্য রাখেন জনাব আবদুল হামিদ স্যার। তিনি স্বাস্থ্য খাতের নানা সমস্যা ও তা থেকে উত্তরণের পথ এবং এতে তরুণদের ভূমিকা সম্পর্কে পরিষ্কার ধারণা দেন। এছাড়াও স্বাস্থ্য খাতে সম্পৃক্ত কর্মকর্তা ও নীতিনির্ধারকদের আরও যত্নবান হবার আহ্বান জানান।


অতঃপর কুইজ ও পোস্টার প্রতিযোগিতার বিজয়ীদের হাতে সম্মানসূচক ক্রেস্ট ও প্রশংসাপত্র তুলে দেন সম্মানিত শিক্ষকমণ্ডলী। পরিশেষে সভাপতি হিসেবে সমাপনী বক্তব্যে Health Economics Study Alliance (HESA) এর এহেন কার্যক্রমকে সাধুবাদ জানান তিনি। ভবিষ্যতে এরূপ কর্মপরিকল্পনা ও সকল ব্যাচ একযোগে কাজ করার মানসিকতার আরও বিকাশ ঘটবে বলে আশা করেন তিনি। এছাড়া অদূর ভবিষ্যতে এই বার্তা পুরো ক্যাম্পাসে ছড়িয়ে দিয়ে সকলকে সাথে নিয়ে একযোগে স্বাস্থ্যখাতে কাজ করে যাবার জন্য তরুণ প্রজন্মকে আহ্বান জানান ড. নাসরিন সুলতানা। সকলকে সাথে নিয়ে এগিয়ে গেলেই দেশকে স্বাস্থ্যসহ অন্যান্য সকল ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ আসনে উন্নীত করা যাবে বলে দৃঢ় প্রত্যয়ী স্বাস্থ্য অর্থনীতির পুরো পরিবার।


মো. এমদাদুর রহমান উদয়

পরিচিতদেরকে জানাতে শেয়ার করুন

0 Comments

দয়া করে নীতিমালা মেনে মন্তব্য করুন ??

অর্ডিনারি আইটি কী?