The DU Speech https://www.duspeech.com/2022/03/imdad-sitara-khan-scholarship.html

ইমদাদ সিতারা খান শিক্ষাবৃত্তি ২০২৩

 ইমদাদ সিতারা খান শিক্ষাবৃত্তি ২০২৩ এর বিজ্ঞপ্তি এখনো প্রকাশিত হয়নি । আজকের আর্টিকেলে আমরা আপনাদের সাথে আলোচনা করব ইমদাদ সিতারা খান শিক্ষাবৃত্তি ২০২৩ সম্পর্কে।  ইমদাদ সিতারা খান শিক্ষাবৃত্তি ২০২৩ সম্পর্কে জানতে আমাদের আর্টিকেলটি পড়ুন।


অনুচ্ছেদ সূচিপত্র (যে অংশ পড়তে  চান তার উপর ক্লিক করুন)

  1.  ইমদাদ সিতারা খান ফাউন্ডেশন কী?
  2. কোন পর্যায়ের শিক্ষার্থী আবেদন করতে পারবেন?
  3. আবেদন করবেন কিভাবে?
  4. আবেদনের লাস্ট ডেট কবে?
  5. ইমদাদ সিতারা খান শিক্ষাবৃত্তি ২০২৩ আবেদনের যোগ্যতা
  6. ইমদাদ সিতারা খান শিক্ষাবৃত্তি ২০২৩ এর প্রয়োজনীয় কাগজপত্র
  7. কিছু গুরুত্বপূর্ণ কথা
  8. আর্টিকেল সম্পর্কিত প্রশ্ন-উত্তর 
  9. লেখকের মন্তব্য 


১. ইমদাদ সিতারা খান ফাউন্ডেশন কী?ইমদাদ সিতারা খান শিক্ষাবৃত্তি ২০২৩

ইমদাদ সিতারা খান ফাউন্ডেশন প্রবাসী বাংলাদেশীদের অর্থায়নে পরিচালিত সেবামূলক একটি ফাউন্ডেশন। ইমদাদ সিতারা খান  ফাউন্ডেশন বিভিন্ন সেবামূলক কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছে। এরই ধারাবাহিকতায়  শিক্ষাবৃত্তি তাদের কার্যক্রমের অন্যতম একটি শাখা। প্রায় প্রতিবছরই তারা শিক্ষাবৃত্তি প্রদান করে আসছে।

২. কোন পর্যায়ের শিক্ষার্থী আবেদন করতে পারবেন| ইমদাদ সিতারা খান শিক্ষাবৃত্তি ২০২৩

যে সকল শিক্ষার্থীরা ইমদাদ সিতারা খান শিক্ষাবৃত্তি ২০২২ এ আবেদন করতে পারবেন-
  • যারা ২০২১ সালে এসএসসি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েছেন এবং বর্তমানে অর্থাৎ ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষ এইচএসসিতে অধ্যায়নরত তারা আবেদন করতে পারবেন। 
  • মানবিক, বিজ্ঞান ও ব্যবসায় বিভাগের সকল শিক্ষার্থী আবেদন করতে পারবে।
  • যারা ২০২০ সালে এইচএসসি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়ে বিভিন্ন পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে  ২০২০-২১ সেশনে অনার্সে অধ্যায়নরত তারা আবেদন করতে পারবেন।
  • অনার্স পর্যায়ের সকল বিভাগের শিক্ষার্থীরা আবেদন করতে পারবেন। বিএ অনার্স, বিএসসি, কৃষি অনুষদের সকল বিভাগ, বিএসসি ইঞ্জিনিয়ারিং টেক্সটাইল, বিডিএস, এমবিবিএস, বিএসসি ইঞ্জিনিয়ারিং পর্যায়ের মেধাবী শিক্ষার্থীদের নিকট হতে শিক্ষা বৃত্তির আবেদন আহ্বান করা হয়েছে।

৩. আবেদন করবেন কীভাবে| ইমদাদ সিতারা খান শিক্ষাবৃত্তি ২০২৩
ইমদাদ সিতারা খান শিক্ষাবৃত্তি 2022 এর জন্য  www.spaandanb.org ওয়েবসাইট থেকে নির্দিষ্ট আবেদন ফরম ডাউনলোড করতে হবে। আবেদন ফরম এর নির্দিষ্ট স্থানে সঠিক তথ্য প্রদান করে আবেদন ফরম পাঠাতে হবে নিচের ঠিকানায়-
  • চেয়ারম্যান, ইমদাদ সিতারা খান বৃত্তি নির্বাচন কমিটি।
  • বাসা #০৭/২,  শ্যামলছায়া #১, ফ্ল্যাট #বি/২, গার্ডেন স্ট্রিট, রিং রোড, শ্যামলী, মোহাম্মদপুর, ঢাকা ১২০৭
  • উক্ত ঠিকানায় ডাক/কুরিয়ার/সরাসরি অফিসে গিয়ে প্রদান করতে পারবেন।

৪.আবেদনের লাস্ট ডেট কবে? ইমদাদ সিতারা খান শিক্ষাবৃত্তি ২০২৩
আবেদন পাঠানোর লাস্ট ডেট হলো ১৭ এপ্রিল ২০২২


৫. আবেদনের যোগ্যতা | ইমদাদ খান সিতারা শিক্ষাবৃত্তি ২০২৩
এইচএসসি শিক্ষার্থীদের আবেদনের যোগ্যতা
  • যারা বর্তমানে এইচএসসি পর্যায়ের শিক্ষার্থী এবং এসএসসিতে বিজ্ঞান বিভাগে চতুর্থ বিষয় ছাড়া জিপিএ 5 পেয়েছে তারা আবেদন করতে পারবে।
  • এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের যারা মানবিক ও ব্যবসায় শিক্ষা বিভাগে পড়ছে তাদের এসএসসিতে চতুর্থ বিষয় ছাড়া জিপিএ 4.50 থাকলে আবেদন করতে পারবে।
  • দৃষ্টি প্রতিবন্ধী এবং যারা স্বাভাবিক জীবন-যাপনে অক্ষম তাদের জন্য জিপিএ 4.00 থাকতে হবে।
অনার্স পর্যায়ের শিক্ষার্থীদের আবেদনের যোগ্যতা
  • বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থীদের জন্য এসএসসি সমমান এবং এইচএসসি ও সমমান উভয় পরীক্ষায় চতুর্থ বিষয় ছাড়া সর্বমোট জিপিএ 9.50 থাকতে হবে।
  • অন্যান্য বিভাগের শিক্ষার্থীদের অর্থাৎ ব্যাবসায় ও মানবিক বিভাগের জন্য উভয় পরীক্ষায়(এসএসসি ও এইচএসসি) চতুর্থ বিষয় ছাড়া জিপিএ 9.20 থাকতে হবে।
  • দৃষ্টি প্রতিবন্ধী অথবা যারা স্বাভাবিক জীবন-যাপনে অক্ষম তাদের চতুর্থ বিষয় ছাড়া জিপিএ থাকতে হবে 8.00

৬. ইমদাদ সিতারা খান শিক্ষাবৃত্তি ২০২৩ এর প্রয়োজনীয় কাগজপত্র | ইমদাদ সিতারা খান শিক্ষাবৃত্তি ২০২৩
যে সকল কাগজপত্র প্রয়োজন অর্থাৎ যে সকল কাগজপত্র বৃত্তির আবেদন এর সাথে প্রদান করতে হবে তা হল 
  • বর্তমানে যে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অধ্যয়নরত সে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রধান অথবা বিভাগীয় প্রধান অথবা প্রভোস্ট অথবা হল সুপার কর্তৃক সত্যায়িত প্রত্যায়ন পত্রের ফটোকপি
  • সকল পরীক্ষার পাশের সনদপত্র অথবা ট্রান্সক্রিপ্ট এর ফটোকপি। বর্তমান শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক কর্তৃক সত্যায়িত হতে হবে।
  • সাম্প্রতিক তোলা দুই কপি পাসপোর্ট সাইজের রঙ্গিন ছবি যা বিভাগের বা বর্তমান শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক কর্তৃক সত্যায়িত হতে হবে।
  • আবেদনকারী কেন নিজেকে এই বৃত্তির জন্য যোগ্য বলে মনে করছেন তার জন্য 300 থেকে 400 শব্দের বর্ণনা যুক্ত করতে হবে যা তার নিজ হাতে লিখতে হবে।
  • পাঠ্যক্রম বহির্ভূত বিভিন্ন কাজের বা সংগঠনের সাথে যুক্ত থাকলে তার সনদপত্র যুক্ত করতে হবে।
  • শুধুমাত্র এমবিবিএস ও বিডিএস শিক্ষার্থীরা যারা 2019 সলে পাশ করেছেন তারাও আবেদন করতে পারবেন।
  • দৃষ্টি প্রতিবন্ধী এবং শারীরিকভাবে অক্ষম হলে সমাজসেবা অধিদপ্তর বা প্রতিষ্ঠান হতে পরিচয় পত্র এর ফটোকপি প্রদান করতে হবে।
  • উক্ত তথ্যগুলো মিথ্যা প্রমাণিত হলে আবেদনপত্র বাতিল বলে গণ্য করা হবে।

৭. কিছু গুরুত্বপূর্ণ তথ্য | ইমদাদ সিতারা খান শিক্ষাবৃত্তি ২০২৩
শিক্ষাবৃত্তি যাদের প্রয়োজন কেবল তারাই আবেদন করবেন। অনেকে রয়েছে যাদের শিক্ষাবৃত্তির প্রয়োজন নেই তারপরেও তারা আবেদন করেন। এমন কাজ করে অন্যের হক নষ্ট করবেন না। এমন অনেক শিক্ষার্থী আছে যাদের লেখাপড়া চালিয়ে যাওয়াই একটা সংগ্রাম। 

PDF আবেদনপত্রে তিনটি পৃষ্ঠা যুক্ত করা রয়েছে।
  1. প্রথম পৃষ্ঠায় বৃত্তির বিজ্ঞপ্তিসহ কী কী কাগজপত্র সংযুক্ত করতে হবে তার বর্ণনা রয়েছে।
  2. দ্বিতীয় পৃষ্ঠায় এইচএসসি পর্যায়ের অধ্যায়নরত শিক্ষার্থীদের আবেদন পত্র রয়েছে।
  3. তৃতীয় পৃষ্ঠা অনার্স পর্যায়ে অধ্যয়নরত শিক্ষার্থীদের আবেদন পত্র রয়েছে।
  4. আবেদন করার সময় বরাবর, চেয়ারম্যান............ আপনার অনুগত ছাত্র এমন করে আবেদন লেখার প্রয়োজন নেই যুক্ত ফাইল থেকে আপনার আবেদনপত্র প্রিন্ট করে নিয়ে নিজ হাতে তথ্য গুলো পূরণ করতে হবে যেগুলো নির্দিষ্ট ছকে আপনাকে পূরণ করতে হবে। এবং এটাই আপনার বৃত্তির আবেদন পত্র।
  5. ফর্মে 1 থেকে 15 টি বিষয়ে সঠিক তথ্য প্রদান করতে হবে কোনোটিতে তথ্য দেওয়ার কিছু না থাকলে 'প্রযোজ্য নয়' লিখবেন।
  6. অন্য কোন প্রতিষ্ঠান থেকে বৃত্তি পেয়েছেন কিনা তারও সঠিক তথ্য দিবেন। বিশেষ করে বোর্ড বৃত্তি যদি পেয়ে থাকেন তার তথ্য দিয়ে দিন । এতে করে আপনাকে সিলেক্ট করতে সুবিধা হবে। যারা বোর্ড বৃত্তি পেয়ে থাকে তাদের এই বৃত্তি পাওয়ার সম্ভাবনা অনেক বেড়ে যায়।
  7. আপনি যদি কোনো প্রতিষ্ঠান থেকে মাসিক 1000 টাকার অধিক হারে বৃদ্ধির জন্য মনোনীত হন সেক্ষেত্রে ইমদাদ সিতারা খান বৃত্তি জন্য আবেদন না করাই উত্তম এতে অন্য একটি শিক্ষার্থীর হক নষ্ট হবে।
  8. অনার্স পর্যায়ের শিক্ষার্থীরা পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় এবং সরকারি মেডিকেল কলেজে অধ্যায়নরত শুধু তারাই আবেদন করতে পারবেন। যারা প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয় বা প্রাইভেট মেডিকেল কলেজে পড়াশোনা করছেন তাদের আবেদন না করার জন্য অনুরোধ করা হচ্ছে।
  9. এইচএসসি শিক্ষার্থীদের ক্ষেত্রে এমন নিয়ম প্রযোজ্য নয়। সরকারি কলেজ বা বেসরকারি কলেজ যেখানেই পড়ুন না কেন আবেদন করতে পারবেন এই  শিক্ষা বৃত্তির জন্য।
৮. আর্টিকেল সম্পর্কিত প্রশ্ন-উত্তর | ইমদাদ সিতারা খান শিক্ষাবৃত্তি ২০২৩
১. প্রশ্ন:  আবেদনের লাস্ট ডেট কবে?
উত্তর ১৭ই এপ্রিল ২০২২
২. প্রশ্ন: পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা আবেদন করতে পারবে কি-না? 
উত্তর পারবে না। সরকারি মেডিকেল ও পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের জন্য এই ইমদাদ সিতারা খান শিক্ষাবৃত্তি। 
৩. প্রশ্ন: ১ম বর্ষ ছাড়া অন্য কোন বর্ষের কেউ আবেদন করতে পারবে?
উত্তর : না,  তবে মেডিক্যাল শিক্ষার্থীরা পারবে। 
৪. প্রশ্ন: এই শিক্ষাবৃত্তি কি প্রতিবছর প্রদান করে?
উত্তর: হ্যাঁ। 
৫. প্রশ্ন: আবেদন কীভাবে করব?
উত্তর:  আবেদন করার জন্য আপনাকে নির্দিষ্ট ফরম ডাউনলোড করে ঠিক তথ্য দিয়ে পূরণ করে নির্দিষ্ট ঠিকানায় পাঠাতে হবে।

৯. লেখকের মন্তব্য | ইমদাদ সিতারা খান শিক্ষাবৃত্তি ২০২৩
ইমদাদ খান সিতারা শিক্ষাবৃত্তি  খুব  একটা বেশি সংখ্যক শিক্ষার্থীদের জন্য নয়। মুষ্টিমেয় শিক্ষার্থীদের জন্য। তাই এই শিক্ষাবৃত্তির পাশাপাশি আপনার উচিত অনান্য শিক্ষাবৃত্তি গুলোতে আবেদন করে রাখা। আমি নিজেও আবেদন করেছিলাম। তখন সিলেক্টেড হই নি। এখানে একটা বাড়তি সুবিধা আছে আর তা হল বোর্ড স্কলারশিপ।  যারা বোর্ড স্কলারশিপ পেয়ে থাকে তাদের এখানে অগ্রাধিকার বেশি থাকে। আপনি যদি বোর্ড স্কলারশিপ পেয়ে থাকেন তাহলে তার তথ্য এখানে প্রদান করুন। আর এই শিক্ষাবৃত্তির পাশাপাশি আপনি অনান্য শিক্ষাবৃত্তির বিজ্ঞপ্তি পাওয়া মাত্রই আবেদন করুন। যাদের অর্থনৈতিক অবস্থা সত্যিই খারাপ তারা সিজেডএম শিক্ষাবৃত্তিতে আবেদন করুন। এখানে তারা আপনাকে মূল্যায়ন করবেই।

পরিচিতদেরকে জানাতে শেয়ার করুন

0 Comments

দয়া করে নীতিমালা মেনে মন্তব্য করুন ??

অর্ডিনারি আইটি কী?