The DU Speech https://www.duspeech.com/2021/10/star-jalsa-bondho.html

স্টার জলসা চ্যানেল বন্ধ কেন?

 বিজ্ঞাপন জটিলতায় বন্ধ হতে যাচ্ছে স্টার জলসা, জি বাংলা , বিবিসিসহ বিদেশি কয়েকটি চ্যানেল। অনেকেই ভাবছেন এই সকল চ্যানেল  বন্ধ কেন হচ্ছে? বিদেশি চ্যানেল গুলো যদি দেশীয় বিজ্ঞাপন ছাড়া পরিবেশন করতে পারে, সেক্ষেত্রে সে সকল চ্যানেল ক্যাবল অপারেটররা চালাতে পারবে, তাছাড়া সে সকল চ্যানেলগুলো সম্প্রচার বাংলাদেশে  করতে পারবে না।


 

কেননা শুধু বিজ্ঞাপন বাবদ উক্ত বিদেশি চ্যানেলগুলোকে দেশীয় বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান মোটা অংকের টাকা প্রদান করে, এতে করে এ দেশ হতে বিদেশি চ্যানেল গুলোর কাছে মোটা অঙ্কের টাকা চলে যায়। যদি ঐ সকল চ্যানেলগুলো বিজ্ঞাপন ছাড়া আমাদের দেশে সম্প্রচার করে সে ক্ষেত্রে মোটা অংকের টাকা এ দেশের বিভিন্ন চ্যানেলে দেওয়া হবে। এক্ষেত্রে এদেশের টাকা এ দেশের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান পাবে। তাই স্টার জলসা, জি বাংলা, বিবিসি, সিএনএন সহ বিদেশী চ্যানেল গুলোর বাংলাদেশের সম্প্রচার বন্ধ রয়েছে।

এ ব্যাপারে ক্যাবল অপারেটর অ্যাসোসিয়েশনের নেতা আনোয়ার পারভেজ বলেন, দেশীয় পরিবেশকরা বিদেশি চ্যানেল গুলোকে বিজ্ঞাপন ছাড়া বাংলাদেশের সম্প্রচার করার কথা ভাবছিল কিন্তু বিদেশি চ্যানেল গুলো বাংলাদেশ এ বিজ্ঞাপন ছাড়া সম্প্রচার করবে না।

বিদেশি চ্যানেল গুলো বাংলাদেশের ক্যাবল অপারেটরদের কে জানিয়ে দিয়েছে যে, বিজ্ঞাপন বন্ধ করে তাদের চ্যানেল এর কার্যক্রম বাংলাদেশের প্রচার করা তাদের পক্ষে সম্ভব নয়। এতে করে স্টার জলসা, জি বাংলা, বিবিসির সহ অন্যান্য চ্যানেল গুলো কেন বাংলাদেশে বন্ধ হচ্ছে সেটা নিশ্চয়ই বুঝতে পারছেন। যদিও বাংলাদেশের পেক্ষাপটে দীর্ঘদিন থেকে স্টার জলসা ও জী বাংলার মত চ্যানেল কে বন্ধ করার পক্ষে বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন প্রেক্ষাপটে দাবি উঠেছিল। কিন্তু তৎকালীন সময়ে দাবি উঠলেও বন্ধ করা যায়নি স্টার জলসা জি বাংলা সহ অন্যান্য চ্যানেল কে। কিন্তু বর্তমানে বিজ্ঞাপন জটিলতার কারণে বন্ধ রয়েছে এ স্টার জলসা জি বাংলা সহ অন্যান্য চ্যানেলগুলো।

এ ব্যাপারে তথ্য মন্ত্রী ড. হাসান মাহমুদ বলেন, বিদেশি চ্যানেলে বাংলাদেশের বিজ্ঞাপন প্রচার করা যাবে না, ভারত-পাকিস্তান ব্রিটেনসহ বিভিন্ন দেশে এরকম আইন রয়েছে। বিদেশি চ্যানেল গুলো বন্ধ করা সরকারের উদ্দেশ্য নয়। বিদেশি বিভিন্ন মিডিয়াতে বিজ্ঞাপন দেখানোর জন্য বাংলাদেশ থেকে হাজার হাজার কোটি টাকা চলে যাচ্ছে। এতে করে বাংলাদেশ সরকারেরই ক্ষতি হচ্ছে। স্টার জলসা জি বাংলা সহ অন্যান্য চ্যানেল যদি বন্ধ করা হয় তাহলে ঐ সকল চ্যানেলে প্রদত্ত টাকাগুলো দেশের মিডিয়া গুলো পেয়ে লাভবান হতো। তাই কেন স্টার জলসা জি বাংলা সহ অন্যান্য চ্যানেল বন্ধ হচ্ছে এ ব্যাপারটা আমরা পরিস্কার বুঝতে পারছি।

তথ্যমন্ত্রী ড হাছান মাহমুদ বলেন, স্টার জলসা ,জি বাংলা সহ বিদেশী চ্যানেল গুলো বন্ধ হওয়ার  এ ব্যাপারে সরকারের কিছু করার নেই। 

বাংলাদেশ ক্যাবল অপারেটর অ্যাসোসিয়েশন এর পরিসংখ্যান এ দেখানো হয়েছে বাংলাদেশ স্টার জলসা জি বাংলা সহ প্রায় 100 টিরও বেশি বিদেশি চ্যানেল প্রচলিত আছে। স্টার জলসা, জি বাংলা সহ এই সকল বিদেশী চ্যানেলের দর্শক প্রায় দেড় কোটি। এই সকল দর্শক  খুবই উদ্বিগ্ন যে কেন বন্ধ হচ্ছে স্টার জলসা জি বাংলা চ্যানেল? 

স্টার জলসা এবং জিবাংলা এই দুটি চ্যানেল বাংলাদেশের পেক্ষাপটে খুবই জনপ্রিয়। স্টার জলসায় প্রকাশিত একটি সিরিয়ালের জন্য বাংলাদেশ এর পূর্বে এক নারী আত্মহত্যা ও করেছিল। এবং এই সকল চ্যানেলের মাধ্যমে বাংলাদেশে ভারতীয় সংস্কৃতির চর্চা হয়ে আসছে। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে কিছু মানুষ দুঃখ পেলেও কিছু মানুষ আত্মসন্তুষ্টি তে রয়েছে। 

কেন বন্ধ হচ্ছে স্টার জলসা জি বাংলা আশাকরি এখন বুঝতে পেরেছেন। এবং এর প্রেক্ষাপট ও বুঝতে পেরেছেন। 

পরিচিতদেরকে জানাতে শেয়ার করুন

0 Comments

দয়া করে নীতিমালা মেনে মন্তব্য করুন ??

অর্ডিনারি আইটি কী?