The DU Speech https://www.duspeech.com/2021/03/blog-post_10.html

আমাদের ওয়েবসাইট এর সিও যেভাবে শেয়ারিং এর মধ্যমে বাড়াতে পারি!

 আমরা একবিংশ শতাব্দীতে তথ্য প্রযুক্তির যুগে বসবাস করছি।আমাদের এই যুগ টা হলো কম্পিটিশন এর যুগ।কে কার আগে যেতে পারে অন্য জন কে পিছে রেখে। আমাদের এই যুগে আমরা সবাই প্রায় তথ্যপ্রযুক্তি নির্ভর। আমরা আমাদের এই তথ্য প্রকাশ এবং তথ্য অর্জনের  জন্য ব্যাবহার করি বিভিন্ন ওয়েবসাইট। আর ওয়েবসাইট গুলোও আমাদের তথ্য দিয়ে যাচ্ছে তাদের আর্থিক স্বার্থের জন্য।আমরা কোনো তথ্য গুগলে সার্চ করলে বিভিন্ন ওয়েব এ ঢুকলেই আমাদের যে জিনিসটা সবার সামনে আসে সেটি হলো বিজ্ঞাপন। হ্যা! এই বিজ্ঞাপন দেখিয়েই আমাদের থেকে অর্থ হাতিয়ে নিচ্ছে তারা।


আমাদেরও অনেকের ওয়েবসাইট রয়েছে।আমরা যারা সাধারণ মানুষ তাদের ওয়েবসাইট গুলো বেশ বড় না।মোটামুটি একটা সীমায় রয়েছে এগুলো।কিন্তু সমস্যা হলো আমাদের ওয়েবসাইটের ভিজিটর সংখ্যা খুবই কম।এর কারণ হচ্ছে আমাদের ওয়েবসাইট গুলোর র‍্যাংকিং এ অনেক পিছিয়ে রয়েছে।ওয়েব এর ভাষা যাকে বলা হয়ে থাকে SEO অনেক টা কম। আমাদের ওয়েবসাইট যত বেশি মানুষের কাছে পৌছাবে তত বেশি এর SEO বাড়বে।আর SEO বাড়লে আমাদের ওয়েবসাইটের র‍্যাংকিং বেড়ে যাবে হু হু করে। আমি আজকে আপনাদের এই পোস্ট এ দেখাব যে কিভাবে আমরা আমাদের ওয়েবসাইট এর র‍্যাংক বাড়াতে পারি SEO করে।তো বন্ধুরা আর বেশি কথা না বলে কাজের কথায় আসা যাক।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করা-

বর্তমানে আমরা আমাদের বেশিরভাগ সময় ব্যায় করি সোসিয়াল নেটওয়ার্ক এ।আমরা অনেকটা ভার্চুয়াল নির্ভর হয়ে পরেছি।আর এইটি আমাদের জন্য একটি বিশাল বড় প্লাটফর্ম আমাদের ওয়েবসাইটগুলোর SEO বাড়ানোর। আমরা এই সাইট গুলোতে আমাদের ওয়েবসাইট গুলোর মার্কেট করতে পারি।এতে করে আমাদের ওয়েবসাইট এর ভিউ বেড়ে যাবে সাথে সাথে র‍্যাংকিং এও সামনে এসে যাবে।
Facebook : বর্তমানে সবচেয়ে বেশি ইউজার সংখ্যা বেশি এই ফেসবুক এ।আমরা ফেসবুকে বিভিন্ন পোস্টে আমাদের ওয়েবসাইট গুলোর লিংক শেয়ার করতে পারি। কেননা আমাদের এই সময়ে সবচেয়ে বেশি ব্যাবহৃত সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম হচ্ছে আমাদের এই ফেসবুক। এইটি অনেক বড় একটা সুযোগ এই প্লার্টফর্ম কে কাজে লাগানোর জন্য। অথবা আমরা একটি পেইজ থেকে ওয়েবসাইটের লিংক শেয়ার করে সেটি বুস্ট করতে পারি।এতে করে আমাদের ওয়েবসাইট এর SEO বেড়ে যাবে।
GOOGLE+ : গুগল প্লাসেও আমরা বিভিন্ন কমেন্ট সেকশনে ওয়েবসাইট এর লিংক শেয়ারের মাধ্যমে আমারের ওয়েবসাইট এর সিও বাড়িয়ে নিতে পারি। অনেকে গুগল প্লাস ব্যবহার না করলেও আমাদের সবার মোবাইলে প্রায় এই এপটি রয়েছে।তাই বন্ধুরা কোনো কিছু যদি আমরা এটির মাধ্যমে শেয়ার করি তবেই আমাদের ওয়েবসাইট গুলো আমাদের বন্ধুদের মাঝে ছড়িয়ে যাবে।
Tweets : আরো একটি জনপ্রিয় সাইট টুইটার।আমাদের দেশের অনেক মানুষ এখন ফেসবুক এর পাশাপাশি টুইটার ব্যাহার করে আসতেছে।এইটির একটি সুবিধা হলো মাত্র কয়েক লাইনেই আমরা যেকোনো কিছু প্রকাশ করে ছেড়ে দিতে পারি সবার মাঝেই। এর মাধ্যমেও আমরা ওয়েবসাইটের লিংক শেয়ার করতে পারি।

ব্যাকলিংকের ব্যাবহার

আমরা আমাদের ওয়েবসাইট এ বিভিন্ন ব্লগ এ ব্যাকলিংক ব্যাবহার করতে পারি।অনেকেই ব্যাকলিংক সম্পর্কে জানেন না। ব্যাকলিংক হলো আপনার কোন ব্লগ এ অন্য কোনো ওয়েবসাইট এর প্রয়োজন লিংক প্রয়োজন হলে ব্যবহার করেন।এটিই মুলত ব্যাকলিংক। ব্যাকলিংকে অন্যসব বড় বড় ওয়েবসাইট এর লিংক প্রবেশ করানোর মাধ্যমে আমাদের ওয়েবসাইট এর SEO ও অনেকটা বাড়িয়ে ফেলতে পারি সহজেই।

লিখার কন্টেন্ট

একটি ওয়েবসাইটের মুল আকর্ষণ ই হচ্ছে তার কন্টেন্ট। আপনি কোন বিষয়ের উপর লিখালিখি করছেন এই দিকটি দেখেই ইউজাররা আপনার ওয়েবসাইট ভিজিট করবে।যদি আপনার কন্টেন্ট গুলো বেশ মান সম্মত হয় তবে আপনার ওয়েবসাইট এর SEO অর্থাৎ র‍্যাংকিং সয়ংক্রিয় ভাবেই বেড়ে যাবে। লিখার ফর্মটিং ও বেশ খাকিনটা প্রভাব ফেলে থাকে এখানে। ফর্মাটিং এর ক্ষেত্রে এই জিনিস গুলোর দিকে খেয়াল রাখতে হবে
  • ইন্টারনাল লিংক
  • শব্দের সংখ্যা
  • লেখার মুল টাইটেল
  • অক্ষর গুলোর সাইজ এবং
  • লেখায় ব্যাবহৃত ইমেজ গুলি

আরো কিছু টেকনিক্যাল বিষয়

এইসব দেখার পাশাপাশি আমাদের আরো কিছু দিকে খেয়াল রাখতে হবে।এগুলোর মধ্যে হলো আপনার ওয়েবসাইটের স্পিড কেমন।আপনার ওয়েবসাইট এর লোডিং স্পিড ও বেশ খানিকটা প্রভাব ফেলে SEO র‍্যাংকিং এর ক্ষেত্রে।

তো বন্ধুরা উপরের এই জিনিস গুলোর দিকে যদি আপনারা খেয়াল রাখেন তবেই আপনাদের ওয়েবসাইটে ভিউ বাড়তে থাকবে অর্থাৎ  SEO এর পরিমাণ বেড়ে যাবে।আমাদের কম্পিটিটররাও চাইলে তাদের ওয়েস্ট যেনো র‍্যাংকিং এ এগিয়ে থাকি।তারাও ভালো ভালো কন্টেন্ট বানিয়ে একটি জায়গা দখল করে নিবে।আমাদের ও প্রচেষ্টা করছে হবে যে তাদের চেয়ে এগিয়ে যেতে।তাহলেই আমরা সফল হব। আজ এই পর্যন্তই বন্ধুরা। সবাই ভালো থাকবেন।


পরিচিতদেরকে জানাতে শেয়ার করুন

0 Comments

দয়া করে নীতিমালা মেনে মন্তব্য করুন ??

অর্ডিনারি আইটি কী?