The DU Speech https://www.duspeech.com/2022/08/ghore-bose-income-korun.html

ঘরে বসে ইনকাম করার উপায় ২০২২

ঘরে বসে ইনকাম করা এখন আর অসম্ভব কোনো কাজ না।সহজ কিছু উপায় অবলম্বনের মাধ্যমেই এখন তা সম্ভব হয়ে দাঁড়িয়েছে।আজকের পৃথিবী ইন্টারনেট কেন্দ্রিক।প্রায় সবকিছুই এখন অনলাইনে করা হচ্ছে। তাই অনলাইনের মাধ্যমে ঘরে বসে ইনকাম করার জন্য রয়েছে অবাধ সুযোগ।যা মহামারী করোনাকালে খুবই বাস্তব আকারে আমাদের সবার সামনে হাজির হয়েছে। এখন 'বাসায় বসে কাজ' কথাটির সাথে আমরা খুবই পরিচিত।তাই অনায়াসে বলা যায় ঘরে বসে ইনকাম করা এখন খুবই সম্ভব।তবে ঘরে বসে ইনকাম করার উপায় সম্পর্কে সঠিক ধারণার পাশাপাশি নির্দিষ্ট লক্ষ্য নিয়ে এগিয়ে যেতে হবে।বিস্তারিত জানতে আরো পড়ুন




ঘরে বসে ইনকাম জন্য রয়েছে নানা উপায়।দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনা বাস্তবায়ন ও কঠোর পরিশ্রমের মাধ্যমেই সফলতা অর্জন সম্ভব।এমন না যে, আজকে শুরু করলাম আর কাল থেকে প্রচুর টাকা আসা করবে।তাই সঠিক ও সময়পোযোগী সিদ্ধান্ত নিয়ে ঘরে বসে ইনকাম  করার উপায় নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করবো।

অনুচ্ছেদ সূচি(বিস্তারিত জানতে নিচে ক্লিক করুন)

  1. ঘরে বসে ইনকাম করার উপায়
  2. ঘরে বসে আর্টিকেল লিখে ইনকাম
  3. ঘরে বসে ইউটিউব থেকে ইনকাম 
  4. ঘরে বসে ফ্রিল্যান্সিং করে ইনকাম 
  5. ঘরে বসে ব্লগিং করে ইনকাম 
  6. ঘরে বসে গুগল অ্যাডসেন্স থেকে ইনকাম 
  7. ঘরে বসে অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং করে ইনকাম
  8. ঘরে বসে হন ভার্চুয়াল অ্যাসিস্টেন্ট
  9. ঘরে বসে ওয়েবসাইট এর মাধ্যমে ইনকাম
  10. ঘরে বসে সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং থেকে ইনকাম
  11. ঘরে বসে গ্রাফিকস ডিজাইন করে অনলাইনে ইনকাম
  12. ঘরে বসে ফাস্টফুড বিক্রয় করে ইনকাম
  13. ঘরে বসে দেশী পিঠার ব্যবসা করে ইনকাম
  14. ঘরে বসে গহনা ডিজাইন করে ইনকাম

১.ঘরে বসে ইনকাম করা উপায়


বর্তমানে সবকিছুই ডিজিটাল প্লাটফর্মে ধাবিত হচ্ছে। তাই অনলাইনে কাজ করে ইনকাম করার প্রচুর সুযোগ তৈরী হচ্ছে।আর এই কাজ ঘরে বসে করা সম্ভব। ঘরে বসে ইনকাম করার নিশ্চিত উপায় রয়েছে। প্রয়োজন শুধু কাজের চাহিদা অনুযায়ী দক্ষতা অর্জন। ঘরে বসে ইনকাম করার নিশ্চিত উপায় সম্পর্কে বিস্তারিত জানুন।


২.ঘরে বসে আর্টিকেল লিখে ইনকাম

বর্তমান সময়ে অনলাইন সেক্টরে প্রচুর আর্টিকেল লেখকের এর চাহিদা রয়েছে।অনলাইন মাধ্যমে যারা ইনকাম করতে আগ্রহী তারা ওয়েবসাইট অথবা পণ্য সম্পর্কে নানা আর্টিকেল লিখে থাকে ইনকাম করে থাকেন।তবে আপনার লেখার মান অনুযায়ী আর্টেকেলের এর দাম নির্ধারণ করা হবে।তাই অল্প সময়ে অধিক আয় করার সুযোগ রয়েছে শুধুমাত্র আর্টিকেল লেখক হওয়ার মাধ্যমে।পাশাপাশি আপনি যদি কোন সাইট বানিয়ে ইনকাম করতে চান তখন আপনাকে আর টাকা দিয়ে আর্টিকেল লেখক নিয়োগ দিতে হবে না। বরং আপনি নিজেই নিজের সাইটের আর্টিকেল লিখে পাবলিশ করতে পারবেন।


৩.ঘরে বসে ইউটিউব থেকে ইনকাম

বর্তমান সময়ে ঘরে বসে ইনকাম করার সেরা মাধ্যম হলো ইউটিউব।আপনি ইউটিউব এ চ্যানেল খোলার পর মানসম্পন্ন ও সৃজনশীল উপায়ে ভিডিও তৈরি করে আপলোড দিতে হবে।আপনার ভিডিও যত বেশি ভিউ হবে তত আপনার চ্যানেলের ভিউ আওয়ার বাড়বে এবং পাশাপাশি আপনার চ্যানেলের নির্দিষ্ট সংখ্যক সাবস্ক্রাইবার প্রয়োজন হবে।তাই আগে থেকে আপনার ভিডিও’র টপিক নির্ধারণ করে নিতে হবে।সে অনুযায়ী ভিডিও তৈরি করতে হবে।আপনার ভিডিও’র ভিউয়ার ও বিজ্ঞাপন থেকে আপনি খুব সহজেই ইউটিউব এর মাধ্যমে ঘরে বসে ইনকাম করতে পারবেন।


৪.ঘরে বসে ফ্রিল্যান্সিং করে ইনকাম

ঘরে বসে ইনকাম করার জন্য প্রথমেই আপনাকে ঘরে বসে আপনার দক্ষতা অনুযায়ী কোন ধরনের সার্ভিস প্রদান করা যায় তা জানতে হবে। তার পরে আপনাকে জানতে হবে কোথায় আপনি আপনার দক্ষতাকে কাজে লাগিয়ে সার্ভিস প্রদানের প্রদানের মাধ্যমে ইনকাম করতে পারবেন।ঘরে বসে ইনকাম করার অন্যতম প্রধান উপায় হচ্ছে ফ্রিল্যান্সিং।যা অনলাইন মার্কেটপ্লেস এর মাধ্যমে হয়ে থাকে।বর্তমানে আপওয়ার্ক,ফাইভার,ফ্রিল্যান্সার ডট কম,পিপল পার আওয়ার ইত্যাদি মার্কেটপ্লেসে কাজের ব্যবস্থা রয়েছে।এইসব মার্কেট প্লেসে আপনি ঘণ্টা হিসেবে অথবা গিগ সাার্ভিস প্রদানের মাধ্যমে আপনার কাজের দাম নির্ধারণ করতে পারবেন।যে কোন প্রজেক্ট অথবা গিগ এ বর্ণিত সার্ভিস প্রদানের পর বায়ার যদি আপনার দক্ষতা আনুযায়ী কাজের অনুমোদন দেয় তবেই আপনি ইনকাম নিশ্চিত করতে পারবেন।ফ্রিল্যান্সিং এর পুরো সার্ভিস আপনি ঘরে বসেই দিতে পারবেন।বিভিন্ন অনলাইন পেমেন্ট ও ব্যাংক এর মাধ্যমে আপনার ইনকাম আনতে পারবেন।

৫.ঘরে বসে ব্লগিং করে ইনকাম

ঘরে বসে ইনকাম করার আরেকটি জনপ্রিয় মাধ্যম হলো ব্লগিং।এর জন্য প্রাথমিকভাবে আপনার ব্লগ সাইট তৈরি করতে হবে অথবা নানান ফ্রি ব্লগ সাইট রয়েছে যাতে আপনি আপনার ব্লগ চালু করতে পারবেন।নিজের ওয়েবসাইটের মাধ্যমেও ব্লগিং শুরু করতে পারবেন।ব্লগে নানান বিষয়ে লেখালেখি প্রকাশিত করা হয়ে থাকে। পরবর্তীতে যখন অধিক সংখ্যক লোক আপনার ব্লগসাইট ভিজিট করে সেই লেখা পড়বে তখন গুগল অ্যাডসেন্স এর জন্য আবেদন করবেন।তখন গুগল এর দেয়া বিজ্ঞাপনে ক্লিক থেকে আপনি অনায়াসে ঘরে বসেই ইনকাম করতে পারেন।


৬.ঘরে বসে গুগল অ্যাডসেন্স থেকে ইনকাম

ঘরে বসে ইনকাম করার নিশ্চিত উপায় এর একটি হলো গুগল অ্যাডসেন্স থেকে ইনকাম। আপনার ওয়েবসাইট অথবা ব্লগ এ নির্ধারিত স্থানে বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে ইনকাম করা যায়। গুগল অ্যাডসেন্স এর মাধ্যমে আপনার ওয়েবসাইট এ বিজ্ঞাপন দেখানো হবে যেখানে ব্যবহারকারীরা বিজ্ঞাপনে ক্লিক করলে আপনি গুগল থেকে টাকা পাবেন। অনলাইনের মাধ্যমে ঘরে বসে ইনকাম এর সবচেয়ে নিরাপদ ও সহজ উপায় হলো গুগল অ্যাডসেন্স এর মাধ্যমে টাকা ইনকাম করা। আপনি পৃথিবীর যে কোন স্থানে থাকেন না কেন নিয়মিত আপনার সাইটে ভিজিটর বাড়ানোর মাধ্যমে আপনার ইনকাম বৃদ্ধি করতে পারবেন।


৭.ঘরে বসে অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং করে ইনকাম

অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং হলো আপনার ওয়েবসাইটে অন্যের প্রোডাক্ট প্রোমোশন এর মাধ্যমে বিক্রি করা। যার মাধ্যমে আপনি বিক্রিত প্রোডাক্টের মূল্য থেকে নির্ধারিত হারে কমিশন পাবেন। আপনার ওয়েবসাইট এর মাধ্যমে যত বেশি প্রোডাক্ট বিক্রি হবে আপনার তত বেশি ইনকাম হবে।অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং এর জন্য শীর্ষ প্রতিষ্ঠান হচ্ছে অ্যামাজন।


৮.ঘরে বসে হন ভার্চুয়াল অ্যাসিস্টেন্ট

বর্তমান সময়ে ভার্চুয়াল অ্যাসিস্টেন্ট এর চাকরি খুবই লোভনীয় ও সহজয়েই পাওয়া যায়।আপনি ঘরে বসেই পৃথিবীর যে কোন প্রান্তের যে কোন কোম্পানির ভার্চুয়াল আ্যাসিস্টেন্ট হতে পারেন।এর মাধ্যমে আপনাকে দেয়া কাজ সমূহ আপনি ঘরে বসেই সম্পাদন করতে পারেন। বর্তমান সময়ে ভার্চুয়াল আসিস্টেন্ট এর চাহিদা অনেক।আর দক্ষতা অনুযায়ী আপনার ইনকাম আপনি চাইলেই বৃদ্ধি করতে পারবেন ঘরে বসেই।


৯.ঘরে বসে ওয়েবসাইট এর মাধ্যমে ইনকাম

আপনি নিজের ওয়েবসাইট এর মাধ্যমে ঘরে বসে ইনকাম করতে পারেন।প্রথমে আপনি নিজস্ব একটি ওয়েবিসাইট তৈরী করবেন এবং এর ডোমেইন নেম, হোস্টিং,থিম ইত্যাদি আপনি নিজের মতো করে সাজাবেন।তারপর আপনি বিভিন্ন টপিক সিলেক্ট করে আর্টিকেল পাবলিশ করবেন।এর মাধ্যমে আপনার ওয়েবসাইট এ ভিজিটর বাড়তে থাকবে।তার পরের ধাপে আপনি গুগল অ্যাডসেন্স এর জন্য আবেদন করবেন। গুগলের বিজ্ঞাপনের অনুমোদনের পর আপনার ওয়েবসাইটে বিভিন্ন বিজ্ঞাপন দেখানো শুরু করবে গুগল।আপনার সাইটের ভিজিটদের বিজ্ঞাপনে ক্লিক থেকে আপনি ইনকাম করতে পারবেন।


১০.ঘরে বসে সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং করে ইনকাম

বর্তমানে সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং এর মাধ্যমে ইনকাম এর নানা উপায় রয়েছে। ফেসবুক,টুইটার,ইন্সট্রাগ্রাম ইত্যাদি মাধ্যম ব্যবহার করে ইনকাম করা খুবই সহজ।আর সোশ্যাল মিডিয়া মার্কের্টিং এর কাজ ঘরে বসে করা যায়। আপনার সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহার করে নানাভাবে আপনি মার্কেটিং করতে পারবেন এবং আপনার পেজ এর যদি ফলোয়ার বেশি হয় তাহলে যে কোন কোম্পানির পণ্যের প্রচারণার মাধ্যমে ইনকাম করতে পারবেন।পাশাপাশি আপনার পেজ বিক্রির মাধ্যমে টাকা ইনকাম করতে পারবেন।ঘরে বসেই আপনি সোশ্যাল মিডিয়ার ম্যাধ্যমে আয় করতে পারবেন।বাংলাদেশে এই মুহূর্তে সোস্যাল মিডিয়া মার্কেটিং এর সবচেয়ে অন্যতম মাধ্যম হল ফেসবুক।আপনি যদি চান শুধু মাত্র ফেসবুক মার্কেটিং শিখেই ঘরে বসে অনলাইনে ইনকাম শুরু করে দিতে পারেন।


১১.ঘরে বসে গ্রাফিকস ডিজাইন করে অনলাইনে ইনকাম

ঘরে বসে ইনকাম করার আরেকটি উপায় হলো গ্রাফিকস ডিজাইন।গ্রাফিকস ডিজাইন শিখে আপনিও  মার্কেটপ্লেস থেকে ইনকাম করতে পারবেন।গ্রাফিকস ডিজাইনের মাধ্যমে ইনকাম করার জন্য এ কাজে দক্ষ হতে হবে। তারপর মার্কেটপ্লেস এ আপনার ডিজাইন দিয়ে গিগ সাজাতে পারেন। অতপর আপনার ডিজাইন বিক্রির মাধ্যমে ঘরে বসেই টাকা ইনকাম করতে পারেন। বর্তমানে গ্রাফিকস ডিজাইনের প্রচুর চাহিদা রয়েছে। প্রয়োজন শুধু দক্ষতা বৃদ্ধি ও কাজের সঠিক উপস্থাপন।


১২.ঘরে বসে ফাস্টফুড বিক্রয় করে ইনকাম

বেশকিছুদিন আগে সময় টিভিতে একটি প্রতিবেদনে দেখানো হয় একটি মেয়ে অর্নাস শেষ করে মাস্টার্স পড়ছে।কিন্তু করোনা মহামারীর কারনে বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ থাকার করনে বাসায় বসে আছে।এই অবস্থায় সে প্রথমে অনলাইনে বিভিন্ন ধরনের কাপড় বিক্রয় করতে শুরু করে।পরর্বতীতে তেমন একটা সারা না পেয়ে হোমমেড ফাস্টফুড বিক্রি শুরু করে ফেসবুক পেজ খুলে।অবাক করার বিষয় হল সেই ফাস্টফুড বিক্রয় হচ্ছে গ্রাম এলাকায়।আপনিও চাইলে ঘরে বসে ফাস্টফুড বিক্রি করে ইনকাম করতে পারেন।


১৩.ঘরে বসে দেশী পিঠার ব্যবসা করে ইনকাম

শত ব্যস্ততার মাঝেও মায়ের হাতের তৈরি পিঠা কে না খেতে চায়।কিন্তু কিছুই করার নেই।দেশী পিঠার একটি ব্যাপক চাহিদা আছে বাজারে।আপনি হাতে তৈরি দেশী পিঠা অনলাইনে বিক্রি করে বাসায় বসে ইনকাম করতে পারেন।


১৪.ঘরে বসে গহনা ডিজাইন করে ইনকাম


বর্তমানে ঘরে বসে গহনা ডিজাইন করে তা বিক্রির মাধ্যমে টাকা ইনকাম করা খুবই জনপ্রিয় একটি ব্যবসায় রুপান্তর হয়েছে।বাজার থেকে প্রয়োজনীয় উপকরন ক্রয় করে একটি সামান্য চুড়ি,গলার চেইন বা অন্য কোন গহনাকে বিশেষ ডিজাইন করে ইন্টারনেটকে কাজে লাগিয়ে বাড়িতে বসে তা বিক্রির মাধ্যমে ইনকাম করা সম্ভব।


১৫.লেখকের মন্তব্য

এছাড়া প্রুফ রিডার,ডেটা এন্ট্রি,অনলাইন টিউটর ইত্যাদি সার্ভিস প্রদান করে ঘরে বসে অনলাইনে ইনকাম করতে পারেন।সকল মার্কেটপ্লেসে এইসব কাজের প্রচুর চাহিদা রয়েছে।যা আপনি ঘরে বসেই প্রদান করতে পারেন।ঘরে বসে ইনকাম করা এখন আর স্বপ্ন নয় বাস্তবতা। দরকার শুধু দক্ষতা অর্জনের পাশাপাশি সঠিক পথ বেছে নেওয়া।তাই আর দেরি না করে আপনার পছন্দের বিষয় নিয়ে কাজ শুরু করে দিন এখনই।আর ঘরে বসে ইনকাম করুন।

পরিচিতদেরকে জানাতে শেয়ার করুন

0 Comments

দয়া করে নীতিমালা মেনে মন্তব্য করুন ??

অর্ডিনারি আইটি কী?